আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ৩০ সেপ্টেম্বর : বাড়িতে গরুর মাংস রেখে খেয়েছে, এমন গুজবে ভারতে ৫০ বছর বয়সী একজন ব্যক্তিকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভারতের রাজধানী দিল্লি থেকে মাত্র ৫০ কিলোমিটার দূরে, উত্তর প্রদেশের দাদরি গ্রামে মোহাম্মদ আখলাক নামের ওই ব্যক্তিকে সোমবার রাতে পিটিয়ে আর পাথর ছুয়ে হত্যা করা হয়।

খামার কর্মী মি. আখলাকের ২২ বছর বয়সী ছেলেও হামলায় গুরুতর আহত হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গুজব ছড়ানোর জন্য দায়ীদের খুঁজছে পুলিশ।

মি. আখলাকের পরিবার বলছে, তাদের ফ্রিজে তারা ছাগলের মাংস রেখেছিল, গরুর নয়। পুলিশ ওই মাংস পরীক্ষা করে দেখার জন্য জব্দ করেছে।

হিন্দু প্রধান ভারতে গরু জবাই একটি স্পর্শকাতর বিষয়। উত্তর প্রদেশের মতো কয়েকটি রাজ্যে গরু জবাই এবং বিক্রি নিষিদ্ধের আইন কঠোরভাবে প্রয়োগ করা হয়।

যদিও গোমাংস খাওয়া নিষিদ্ধ করার বিষয়টি ভারতে ক্ষোভের তৈরি করেছে। অনেকেই বলছেন, আমাদের খাবারের তালিকায় কি থাকবে, সেটা কি করে সরকার ঠিক করে দেবে? সূত্র : বিবিসি

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *