ঢাকা, ৩ অক্টোবর : জাতিসংঘের ৭০তম অধিবেশনে যোগদান শেষে দেশে ফেরার পর প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে আজ শনিবার বিমানবন্দরে ব্যাপক সংবর্ধনা দেওয়া হবে। এ ব্যাপারে বিশাল প্রস্তুতি নিয়েছে আওয়ামী লীগ। প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানাতে হাজার হাজার মানুষ বিমানবন্দরে উপস্থিত থাকবেন।

জাতিসংঘের পরিবেশ বিষয়ক সর্বোচ্চ পুরস্কার ‘চ্যাম্পিয়ন্স অব দি আর্থ’ এবং আন্তর্জাতিক টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়নের (আইটিইউ) ‘আইসিটি টেকসই উন্নয়ন পুরস্কার’ পাওয়ায় আজ দুপুর দেড়টায় এই সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছে।

এই সংবর্ধনাকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন পর্যন্ত সড়কগুলোর দুই পাশে দাঁড়িয়ে জনগণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানাবেন। এই সংবর্ধনাকে ঘিরে রাজপথে সর্বস্তরের জনতার ঢল নামানোর সর্বাত্মক প্রস্তুতিও নিয়েছে আওয়ামী লীগ। রাজধানী ঢাকা ছাড়াও পার্শ্ববর্তী জেলাগুলো থেকে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতি ঘটাতে একাধিক প্রস্তুতি ও যৌথসভাও করেছে ক্ষমতাসীন দলটি।

এদিকে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এই সংবর্ধনা আয়োজিত হলেও ১৪ দলসহ মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সব দল ও সংগঠন এবং সব শ্রেণীপেশার প্রতিনিধিরাও এতে অংশ নিচ্ছেন। এতে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানটি সর্বজনীন রূপ পাচ্ছে। গতকাল শুক্রবার ১৪ দলের এক যৌথসভা থেকে সব রাজনৈতিক সংকীর্ণতার ঊর্ধ্বে উঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানাতে সব শ্রেণীপেশার মানুষকে জাতীয় পতাকা, ব্যানার-ফেস্টুন ও ফুল হাতে রাস্তার দুই পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানানো হয়েছে।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭০তম অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী গত ২৩ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্ক যান। সেখানে বিভিন্ন অধিবেশনে যোগদান ছাড়াও দুটি আন্তর্জাতিক পুরস্কার ‘চ্যাম্পিয়ন্স অব দি আর্থ’ এবং ‘আইসিটি টেকসই উন্নয়ন পুরস্কার’ গ্রহণ করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই বিরল অর্জনকে স্মরণীয় করে রাখতেই তাকে বিমানবন্দরে বিশাল সংবর্ধনা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আগামী ৫ অক্টোবর সংসদ ভবনের সাউথ প্লাজায় ঢাকার দুই মেয়র রাজধানীবাসীর পক্ষে প্রধানমন্ত্রীকে নাগরিক সংবর্ধনা দেবেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *