স্পোর্টস ডেস্ক, ১৭ সেপ্টেম্বর : আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে কাতারের দোহায় পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। ৪ থেকে ২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দোহায় পিএসএলের প্রথম আসর হবে।

পাকিস্তান সুপার লিগের জন্যে ২৫ বিদেশি ক্রিকেটার নির্বাচন করেছে পিসিবি। এর মধ্যে বাংলাদেশের দুই ক্রিকেটার রয়েছেন। সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল পিএসএলে খেলবেন। এরই মধ্যে বোর্ডের সঙ্গে মৌখিক কথাও বলে রেখেছেন তারা। বিসিবিও কোনো আপত্তি করেনি। সঠিক সময়ে নো অবজেকশন সার্টিফিকেট (এনওসি) পাওয়ার আশ্বাস পেয়েছেন সাকিব ও তামিম।

এ বিষয়ে সাকিব আল হাসান বলেছেন,‘আমি টুর্নামেন্টের নিলামে আছি। যদি কোনো দল আমাকে নেয় এবং টুর্নামেন্ট চলাকালে জাতীয় দলের কোনো খেলা না থাকে তাহলে আমি নিশ্চয়ই খেলব।’

তামিম ইকবালও একই কথা বলেছেন। তার ভাষ্য,‘যদি বোর্ড অনুমতি দেয়, তাহলে আমি পিএসএলে খেলব। তবে সব কিছুর ঊর্ধ্বে আমাদের জাতীয় দল। আমরা এমন কিছু করব না যেটা আমাদের জাতীয় দলের দায়িত্ব থেকে সরে গিয়ে করতে হয়।’

পিএসএল শুরু হবে আগামী বছরের ৪ ফেব্রুযারি। সে সময় বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের সিরিজ চলবে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে সিরিজ শুরু হবে ১৫ জানুয়ারি। শেষ হবে ১৬ ফেব্রুয়ারি। সে হিসেবে সাকিব ও তামিমকে যদি কোনো দল কিনে নেয় তাহলে টুর্নামেন্টের শুরু দিকে তাদের পাবে না। মাঝপথে যোগ দিতে হবে সাকিব ও তামিমকে।

পিএসএলে সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল ছাড়া অন্য বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে চারজন ওয়েস্ট ইন্ডিজের। এ ছাড়া শ্রীলঙ্কা, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে দুজন করে ক্রিকেটার থাকবেন।

প্রসঙ্গত, টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দল পাবে এক মিলিয়ন ডলার। এর আগে ২০১৪ ও ২০১৫ সালে পিএসএল আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছিল পিসিবি। কিন্তু স্পন্সর ও লজিস্টিক সাপোর্ট না পাওয়ায় ভেস্তে যায় তাদের সে পরিকল্পনা। পিসিবির এবারের পরিকল্পনা শেষ পর্যন্ত টিকবে কি না, সেটা সময়ই বলবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *