স্পোর্টস ডেস্ক, ৩ অক্টোবর : ঘরোয়া ক্রিকেট উপভোগ করছেন আমির। ছবিঃ এএফপিআন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে আর কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই। কিন্তু চাইলেই তো আর ফেরা যাচ্ছে না। ৫ বছর ধরে ক্রিকেটের বাইরে থাকায় ধার নিশ্চয়ই কমেছে। অনভ্যাসে বিদ্যা হ্রাস। তা হয়তো কমেছে। তবে সেই ধুলো ঝেড়ে ফেলছেন মোহাম্মদ আমির। কাল মুলতানে ঘরোয়া ম্যাচে এক ইনিংসে সাত উইকেট নিয়ে পুরোনো ধারের ঝলকানিও দেখালেন।

২৩ বছর বয়সী এই বাঁ হাতি পেসার পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের পুনর্বাসন পরিকল্পনার অধীনে ফিরে আসার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। বর্তমানে খেলছেন সাউদার্ন গ্যাস করপোরেশনের হয়ে। কাল এই দলের হয়েই স্টেট ব্যাংক অব পাকিস্তানের বিপক্ষে ৬১ রানে ৭ উইকেট নেন। প্রথম ইনিংসে ৩ উইকেট নিয়েছিলেন। ম্যাচে দশ উইকেট। এর আগে প্রথম ম্যাচে নিয়েছিলেন ৭ উইকেট। দুই ম্যাচে তাঁর উইকেট ১৭টি।

অবশ্য বাছাই পর্বের এই ম্যাচগুলো প্রথম শ্রেণির মর্যাদা পাচ্ছে না। তবে পরের ম্যাচটা জিতলেই গ্যাস করপোরেশন কায়েদ-এ-আজম ট্রফিতে খেলার ছাড়পত্র পাবে। এটিই পাকিস্তানের সর্বোচ্চ ঘরোয়া টুর্নামেন্ট। সেই প্রতিযোগিতায় ভালো করা মানে জাতীয় দলের দরজা আবার তাঁর জন্য খুলে যাওয়া। আমিরও তা ভালো করে জানেন। অবশ্য তাড়াহুড়ো করতে চাইছেন না। ২০০৯ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখেন। ১৪ টেস্টে ৫১ উইকেট নিয়ে দ্রুত নজরও কাড়েন। কিন্তু আরও দ্রুত ওপরে ওঠার লোভেই পরের বছর জড়িয়ে পড়েন স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে।

আমির তাই এখনই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের কথা ভাবছেন না। বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, ‘বোলিংটা বেশ উপভোগ করছি। নিজের অগ্রগতিতে আমি সন্তুষ্ট। প্রতি দিনই আগের চেয়ে আরও ভালো বোধ করছি। এখন আমার মনোযোগ ঘরোয়া ম্যাচগুলোতে। দলকে মূল পর্বে ওঠাতে চাই। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট এখনই আমার ভাবনায় নেই। পুরো ছন্দ ফিরে পাওয়ার পরই ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা করব।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *