ঢাকা, ১৮ সেপ্টেম্বর : ঐতিহাসিক এক সফরে বাংলাদেশে আসছেন ইউরোপের প্রভাবশালী দুই দেশ জার্মানি ও ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তারা দুজন একসঙ্গে বাংলাদেশ সফরে আসছেন বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ ধরনের (যৌথ) সফর এর আগে আর কখনোই হয়নি। এটা একটা ঐতিহাসিক সফর।

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসন্ন নিউইয়র্ক সফর উপলক্ষে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

আগামী ২১ সেপ্টেম্বর তিন দিনের সফরে আসছেন জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাঙ্ক-ভাল্টার স্টেইনমেয়ার ও ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লরাঁ ফ্যাবিউস।

মাহমুদ আলী বলেন, গত জুনে প্যারিসে সাক্ষাতের সময় ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমার কাছে এই যৌথ সফরের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। আমি সঙ্গে সঙ্গেই তার প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছিলাম।

তিনি বলেন, দুটি দেশই ইউরোপের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দুটি দেশ। তাছাড়া ফ্রান্স ও জার্মানি উভয়ই আমাদের বন্ধু দেশ; যারা আমাদের মুক্তিযুদ্ধেও সমর্থন করেছিল।

মন্ত্রী জানান, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পটুয়াখালীতে চলমান প্রকল্পের কার্যক্রম দেখতে যাবেন দুই মন্ত্রী। তাদের সঙ্গে নিজের যাওয়ার কথাও জানান তিনি।

আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে বড় ধরনের ঝুঁকির মুখে আছে বাংলাদেশ। প্যারিস জলবায়ু সম্মেলনের আগে তাদের এ সফর বাংলাদেশকে জোরালোভাবে বক্তব্য তুলে ধরতে সহায়তা করবে।

এর আগে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, জার্মানি ও ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা ঢাকায় ফ্রাঙ্কো-জার্মান দূতাবাস ভবন উদ্বোধন করবেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *