স্পোর্টস ডেস্ক, ১৫ সেপ্টেম্বর : আঙুলের টোকায় কয়েনটা যখন ভাসিয়ে দেওয়া হয় বাতাসে, সবার চোখ সেদিকে। টসে কে জিতল—এ নিয়ে বিপুল আগ্রহ। ক্রিকেটে টসে জেতা সব সময়ই গুরুত্বপূর্ণ। সেই টস কিনা থাকবে না টেস্টে! রিকি পন্টিংয়ের প্রস্তাব এমনই। শোনা গিয়েছিল, তাঁর পূর্বসূরি স্টিভ ওয়াহ নাকি একমত এ প্রস্তাবে। তবে সাবেক অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক সর্বশেষ জানিয়েছেন, এমনটা বলেননি তিনি।

পন্টিং বলেছিলেন, স্বাগতিক দল যাতে নিজেদের পছন্দমতো বানানো উইকেটের সুবিধা না নিতে পারে, এ কারণে টস প্রথা তুলে দেওয়া উচিত। সফরকারী দল ঠিক করবে প্রথমে ব্যাটিং না বোলিং। প্রস্তাবটা যেহেতু যুগান্তকারী, এ কারণে এ নিয়ে সাবেকদের অনেকেই কথা বলেছেন। তখন শোনা গিয়েছিল স্টিভের মতো ক্রিকেট ​ব্যক্তিত্বও পন্টিংয়ের পক্ষে। তাঁর বরাতে একটি মন্তব্য পাওয়া গিয়েছিল। যেখানে স্টিভ বলেছিলেন, ‘আমার মনে হয় এটা খারাপ হবে না। টস এবং অন্য দেশের কন্ডিশন খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে। অন্য কোনো কিছু ভাবা হলে আমার তাতে আপত্তি নেই।’

তবে বিশ্বকাপজয়ী এই অধিনায়ক বলছেন, তাঁর বক্তব্য ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। স্টিভ বলেছেন, ‘টস থাকবে কিনা এ ব্যাপারে কেউ একজন জিজ্ঞেস করেছিল। বলেছিলাম, টস যেমন আছে থাকুক। আমার মন্তব্য ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। বলেছিলাম, টস বাতিলের ধারণাটি খারাপ নয়। তবে টস থাকার পক্ষেই আমি।’

পন্টিংয়ের প্রস্তাবে সমর্থন জানিয়েছিলেন সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ফাস্ট বোলার মাইকেল হোল্ডিংও। পন্টিং-হোল্ডিংয়ের মতের সঙ্গে আবার দ্বিমত পোষণ করেছিলেন জাভেদ মিয়াঁদাদ। এ ক্ষেত্রে পাকিস্তানি কিংবদন্তিকেই সমর্থন জানাচ্ছেন স্টিভ, ‘জাভেদ মিয়াঁদাদের সঙ্গে একমত। যদি আপনি ভালো খেলোয়াড় হন, যেকোনো কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার সামর্থ্য থাকতে হবে।’ তথ্যসূত্র: পিটিআই।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *