স্পোর্টস ডেস্ক, ৯ সেপ্টেম্বর : বাংলাদেশ মহিলা দলের চলতি মাসের শেষে পাকিস্তান সফরে যাবে কিনা তা চূড়ান্ত করতে বিসিবির নিরাপত্তা পরিদর্শক দল সোমবার করাচির ভেন্যু পরিদর্শন করেছে।

বিসিবির প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা হুসাইন ইমামের নেতৃত্বে চার সদস্যের পরিদর্শক দলে রয়েছে লেফন্যান্ট কর্নেল রফিকুল ইসলাম, উপ মহাপরিদর্শক মেজবাহ উদ্দিন ও অতিরিক্ত উপ মহাপরিদর্শক মাজহারুল ইসলাম। রয়েছেন ইসলামাবাদে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনের নিরাপত্তা উপদেষ্টা মির্জা ইজাজুর রেহমান।

পরিদর্শক দল পাকিস্তানের করাচি এবং লাহোরের যে ভেন্যুতে খেলা হওয়ার কথা রয়েছে সেগুলো পরিদর্শন করেছে। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের নিরাপত্তা উপদেষ্টা কর্নেল আজম ও জাতীয় স্টেডিয়ামে এর জ্যেষ্ঠ ম্যানেজার আরশাদ খান পরিদর্শক দলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে নিরাপত্তা ব্যবস্থার বিভিন্ন দিক এবং সফর সঠিক মতো বাস্তবায়ন নিয়ে তাদের অবহিত করেন।

লাহোরে প্রতিনিধিদল থাকাকালীন অবস্থায়, পিসিবি সভাপতি শাহরিয়ার খান, পিসিবি নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি এবং চিফ অপারেটিং অফিসার সুবহান আহমেদের সঙ্গে সাক্ষাত করার কথা রয়েছে। পরিদর্শক দল আরো দু’তিনদিন নিরাপত্তা জনিত সকল কিছু পরিদর্শন করে দেশে ফিরবে।

এর আগে পাঞ্জাবের ক্রীড়া ও শিক্ষা মন্ত্রী রানা মাশহুদ আহমেদ খান বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল কে স্বাগতম জানান। তিনি আশাপ্রকাশ করেন শীঘ্রই নারী বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট দলের সফর সংক্রান্ত ভালো খবর শুনতে পাবেন। তিনি আরো জানান, সফল ভাবে নারী ক্রিকেট দলের সফর শেষ করতে পারলে পুরুষ জাতীয় দলকেও পাকিস্তানে আমন্ত্রণ জানাবে।

তবে বিসিবি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী স্পট জানিয়ে দিয়েছেন, প্রতিনিধি দল পাকিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি সরেজমিনে দেখে এসে দেশে ফিরে ইতিবাচক প্রতিবেদন জমা দিলে বিসিবি মহিলা দলকে পাকিস্তানে পাঠাবে।

নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণ দলের সবুজ সংকেত পেলে পাকিস্তান মহিলা দলের সঙ্গে ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ৮ অক্টোবর পর্যন্ত তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে সালমারা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *