Search
Wednesday 17 July 2019
  • :
  • :

চুয়াডাঙ্গায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট, ভোগান্তিতে যাত্রীরা

চুয়াডাঙ্গায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট, ভোগান্তিতে যাত্রীরা

চুয়াডাঙ্গা, ২ আগস্ট : চুয়াডাঙ্গা থেকে দূরপাল্লা ও অভ্যন্তরীণ রুটে সব ধরনের যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে জেলা সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। চুয়াডাঙ্গার রয়েল এক্সপ্রেস বাস চলাচলে ঝিনাইদহ মালিক সমিতির বাধার কারণে লাগাতার বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে চুয়াডাঙ্গা মালিক-শ্রমিক পরিষদ।

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় যাত্রীরা ভোগান্তিতে পড়েছেন। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সকল ৬টা থেকে চুয়াডাঙ্গা থেকে দূরপাল্লা ও অভ্যন্তরীণ রুটে সকল প্রকার যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে জেলা সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ জানায়, চুয়াডাঙ্গা থেকে পটুয়াখালী ভায়া ঝিনাইদহ রুটে দুটি নতুন বাস চলাচলে বাধা ও রয়েল এক্সপ্রেসের ঢাকা ও পটুয়াখালীগামী সকল বাস চলাচল বন্ধের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য জেলার সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধ থাকবে।

অভিযোগ করা হয়, ঝিনাইদহে সড়ক পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতারা মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করে পটুয়াখালীগামী রয়েল পরিবহনের দুটি বাস চলাচলে বাধা দিচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় ওই পরিবহনের ঢাকাগামী সকল বাস ঝিনাইদহের ওপর দিয়ে চলাচল ও কাউন্টার বন্ধ করে দিয়েছে। সংবাদ সম্মেলন থেকে ঘোষণা দেয়া হয়, বুধবারের মধ্যে চলমান সমস্যার সমাধান না হলে আজ ২ আগস্ট বৃহস্পতিবার ভোর থেকে চুয়াডাঙ্গার দূরপাল্লা ও আন্তঃজেলা পথে সব ধরনের যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ থাকবে। এ সময় জানানো হয়, চুয়াডাঙ্গা থেকে ঝিনাইদহ রুটে মোট ৬০টি বাস চলাচল করে।

অভিযোগ প্রসঙ্গে ঝিনাইদহ জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি রোকনুজ্জামান বিশ্বাস বলেন, মোটা অঙ্কের চাঁদার দাবি ঠিক নয়। রয়েল এক্সপ্রেসের মালিক অন্যান্য জেলার মালিক শ্রমিক সংগঠনের সাথে চিঠি চালাচালি করলেও ঝিনাইদহকে জানায়নি। আলোচনায় বসে সমস্যার সমাধান সম্ভব। -সমকাল