Search
Monday 29 November 2021
  • :
  • :
সর্বশেষ

সুপার টুয়েলভে আজ শারজায় বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা

সুপার টুয়েলভে আজ শারজায় বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা

স্পোর্টস ডেস্ক, ২৪ অক্টোবর : টি-২০ বিশ্বকাপে এশিয়ার চার সেরা দলই মাঠে নামছে আজ। সুপার টুয়েলভ পর্বে দিনের প্রথম ম্যাচে বিকাল ৪টায় মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা। রাতের ম্যাচটি তো উত্তাপ ছড়াবে আরো। দ্বিতীয় পর্বের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচে রাত ৮টায় লড়বে দুই চিরশত্রু ভারত-পাকিস্তান।

প্রথম পর্বে শ্রীলঙ্কা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সুপার টুয়েলভে উঠলেও, বাংলাদেশ দ্বিতীয় রাউন্ডে এসেছে অনেক লড়াই করে। প্রথম ম্যাচেই স্কটল্যান্ডের কাছে হার অনেক বড় ধাক্কা দিয়েছিল টাইগারদের। স্কটিশদের কাছে হেরে তুমুল সমালোচনায় বিদ্ধ হতে হয় পুরো দলকেই। পরের ম্যাচে ওমানের বিপক্ষে জিতলেও, সেটাও ছিল ঘাম ঝরানো। তবে শেষ ম্যাচে অনেকটা হেসে-খেলে পাপুয়া নিউগিনিকে হারিয়ে সুপার টুয়েলভ পর্বের টিকিট কাটে সাকিব-মুস্তাফিজরা।

প্রথম ম্যাচে হতাশাজনক পারফরম্যান্সের পর শেষ দুই ম্যাচে নিজেদের সেরা ক্রিকেট উপহার দেন সাকিব আল হাসান। সাকিব মূলত তিন ম্যাচেই দারুণ ব্যাটিং ও বোলিং করেছেন। পরপর দুই ম্যাচে পেয়েছেন ম্যাচসেরার পুরস্কারও।

মাহমুদউল্লাহর স্ট্রাইকরেট নিয়ে কথা উঠলেও নিউগিনির বিপক্ষে বিস্ফোরক ব্যাটিং করে নিজের জাত আবার চেনান তিনি। করেন নিজের টি২০ ক্যারিয়ারের দ্রুততম ফিফটি। আগ্রাসী ব্যাটিং উপহার দিয়েছেন অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

তবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নামার আগে বাংলাদেশ দলের দুশ্চিন্তার কারণ মুশফিকুর রহিমের অফ-ফর্ম। নিজেকে ব্যাট হাতে অনেক দিন ধরেই খুঁজে পাচ্ছেন দলের ব্যাটিং স্তম্ভ। যদিও স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ৩৮ রান করেছিলেন তিনি। তবে অনেকটাই শ্লথ গতির ব্যাটিং করে উল্টো সমালোচিত হন তিনি।

দলের ওপেনিং সমস্যাও কাটেনি। দ্বিতীয় ম্যাচে নাঈম শেষ ফিফটি পেয়েছিলেন বটে, তবে সৌম্য-লিটন কিংবা নাঈম-লিটন কোনো জুটিই উঠছে না জমে। বোলিংটাই তাই আশার জায়গা বাংলাদেশের। সাকিব তিন ম্যাচে পকেটে পুরেছেন ৯ উইকেট। পেসার মুস্তাফিজও ভালো করেছেন। শেখ মাহেদী হাসান নিয়মিত উইকেট না পেলেও করে যাচ্ছেন বেশ আঁটসাঁট বোলিং।

প্রথম রাউন্ডে তিন জয় নিয়ে সুপার টুয়েলভে উঠলেও শ্রীলঙ্কার ভয়ের কারণও ব্যাটিং। তাদের ব্যাটারদের কেউই ধারাবাহিক নন। তবে বোলিংয়ে যথেষ্ট বৈচিত্র আছে লঙ্কার। পেস ও স্পিন মিলিয়ে দুর্দান্ত এক বোলিং ইউনিট গড়েছে তারা। তবে এই ম্যাচে তারা পাচ্ছে না দলের রহস্য-স্পিনার মহেশ থিকশানাকে। পিঠের ইনজুরির কারণে তাকে এ ম্যাচ না খেলানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কার ফিজিওরা।

রাত ৮টায় মুখোমুখি ভারত-পাকিস্তান: ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ মানেই অন্যরকম এক রোমাঞ্চ, বাড়তি উত্তেজনা। তবে ইতিহাস বলছে, বিশ্বমঞ্চে শুধুই ভারতের জয়গানের কথা। টি২০ বিশ্বকাপ ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত, দুদলের পাঁচবারের দেখায় পাঁচবারই জিতেছে ভারত। পাকিস্তান এবার সেই গেরো খুলতেই নামছে মাঠে।

তবে টি২০ ক্রিকেটের সবচেয়ে ব্যালান্সড দল বলা চলে ভারতকে। ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং কোনো বিভাগেই দুর্বলতা নেই তাদের। দলটির ব্যাটিংয়ের মূল ভরসা বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা, ঋষভ পন্থ। বোলিংয়ে আছেন যথারীতি জসপ্রীত বুমরাহ, মোহাম্মদ শামি, রবিচন্দ্রন অশ্বিনরা। রবীন্দ্র জাদেজা আর হার্দিক পান্ডিয়ার অলরাউন্ডিং পারফম্যান্স তো হবে দলটির বাড়তি পাওনা।

পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনেআপের যথেষ্ট গভীরতা আছে। বিশেষ করে অধিনায়ক বাবর আজম আছেন উড়ন্ত ফর্মে। মোহাম্মদ রিজওয়ান আর ফখর জামানের মতো পরীক্ষিত ব্যাটাররাও যেকোনো সময় ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারেন। তার ওপর দলে ফিরেছেন অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক। লোয়ার মিডল অর্ডারে যার ব্যাট সবসময়ই জ্বলে ওঠে।

বোলিংয়ে পাকিস্তানকে শাহীন শাহ আফ্রিদি নেতৃত্ব দেবেন। হাসান আলী ও স্পিনার শাদাব বৈচিত্রময় বোলিং ভোগাতে পারে ভারতের দুর্বার ব্যাটিং লাইনআপকে।