Search
Sunday 22 May 2022
  • :
  • :

‘সংসদে কোরাম সংকটে অপচয় ৩২ কোটি টাকা’

‘সংসদে কোরাম সংকটে অপচয় ৩২ কোটি টাকা’

ঢাকা : দশম জাতীয় সংসদ অধিবেশনে কোরাম সংকটের ফলে ৩২ কোটি ৪২ লাখ ৩১ হাজার টাকার অপচয় হয়েছে বলে জানিয়েছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল (টিআইবি)। আজ রোববার (২৫ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর টিআইবি কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান।

তিনি বলেন, দশম সংসদের দ্বিতীয় থেকে ষষ্ঠ অধিবেশনের (৫টি অধিবেশন) ১১২ কার্যদিবসে সময় ব্যয় হয়েছে ৩৮৮ ঘণ্টা ৩৫ মিনিট। প্রতি কার্যদিবসে গড়ে বৈঠক হয়েছে ৩ ঘণ্টা ২৮ মিনিট। ৫টি অধিবেশনে মোট কোরাম সংকট ছিল প্রতি কার্যদিবসে গড়ে ২৬ মিনিট। যার অর্থমূল্য প্রায় ২৮ লাখ ৮৬ হাজার টাকা (সংসদ অধিবেশন পরিচালনা করতে প্রতি মিনিটে গড় ব্যয় প্রায় ১ লাখ ১১ হাজার টাকা)। মোট কোরাম সংকট হয় ৪৮ ঘণ্টা ৪১ মিনিট। অর্থাৎ ৫টি অধিবেশনে কোরাম সংকটে ৩২ কোটি ৪২ লাখ ৩১ হাজার টাকার অপচয় হয়েছে।

টিআইবি’র গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দশম জাতীয় সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশন থেকে ৬ষ্ঠ অধিবেশন পর্যন্ত রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর সাধারণ আলোচনায় প্রায় ৬৩ ঘণ্টা ২৬ মিনিট ব্যয় হয়েছে। যা মোট সময়ের ১৬ শতাংশ। এতে ২৩২ জন সংসদ সদস্য অংশগ্রহণ করেন।

আলোচনায় নির্ধারিত প্রসঙ্গের বাইরে নির্বাচনী এলাকার চাহিদা সম্পর্কিত প্রস্তাব উত্থাপন, ব্যক্তিগত ও পারিবারিক বিষয় নিয়ে আলোচনা এবং অসংসদীয় ভাষার ব্যবহার অব্যাহত রয়েছে।

সংসদে অসংসদীয় ভাষা এবং গ্যালারিতে শৃঙ্খলা রক্ষার ব্যপারে স্পিকার নিরব ভূমিকা পালন করেন।

দশম সংসদে সরকারি দলের প্রশংসা ও সমালোচনা দুই বেড়েছে। অষ্টম, নবম ও দশম সংসদের তুলনামূলক চিত্রে গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এই তিন সংসদের দ্বিতীয় থেকে ৬ষ্ঠ অধিবেশন পর্যন্ত পর্যালোচনা তুলে ধরা হয়েছে।

এর মধ্যে অষ্টম সংসদে মোট কার্যদিবস ছিল ৮১ দিন, নবম সংসদে ছিল ১৩০ দিন এবং দশম সংসদে এ পর্যন্ত ১১২ দিন। এরমধ্যে অষ্টম সংসদে বৈঠক কালছিল ৩৩২ ঘণ্টা, ১০ মিনিট, নবমে ছিল ৪১৭ ঘণ্টা, ১৮ মিনিট এবং দশম সংসদে ৩৮৮ ঘণ্টা ৩৫ মিনিট।

অষ্টম সংসদে নিজ দলের প্রশংসা ছিল ৬২৬ বার, নবম সংসদে প্রশংসা করা হয় ৫৯৯ বার, দশম সংসদে এই হার ৭৫০০ বার। সমালোচনা অষ্টম সংসদে সংসদের ভেতরের প্রতিপক্ষ দলের সমালোচনা হয় ৪৯১ বার,  নবম সংসদে  ৮০৪ বার এবং দশম সংসদে সংসদের বাইরের রাজনৈতিক জোটের সমালোচনা হয় ৭ হাজার ২৬৮ বার।




Leave a Reply

Your email address will not be published.