ঢাকা, ৮ অক্টোবর : ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের বিষয়টি বিবেচনা করে শুক্রবার ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বর্জনের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শিক্ষক সমিতি। পূর্বনির্ধারিত সময়সূচি অনুযায়ী, বিকেল ৩টা থেকে রাজধানীর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১৮টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের জরুরি সভা শেষে পরীক্ষা গ্রহণে সম্মতি জানায় শিক্ষক সমিতি।

সভা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘শিক্ষক সমিতি ভর্তি পরীক্ষা বর্জনের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন। নির্ধারিত সময়ে অনুযায়ী পরীক্ষা নিতে সম্মত হয়েছেন তারা। তাই শুক্রবার নির্ধারিত সময়েই ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে।’

এর আগে বুধবার স্বতন্ত্র বেতন কাঠামোর দাবিতে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত ‘বি’, ‘সি’ এবং ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বর্জনের সিদ্ধান্ত নেয় জবি শিক্ষক সমিতি। এর কয়েক ঘণ্টা পরে শৃঙ্খলা পরিপন্থি কাজের অভিযোগে জবি শিক্ষক সমিতিকে সাময়িক বহিষ্কার করে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন।

এদিকে, শিক্ষক সমিতির পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণার প্রেক্ষাপটে ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের জরুরি বৈঠকে বসেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান। পরে শিক্ষক সমিতি আবারও জরুরি সাধারণ সভা করে শুধুমাত্র শুক্রবারের ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়।

জবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আলী নূর এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘শুধুমাত্র কাল শুক্রবারের ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এছাড়া আগামী ১৬ ও ৩০ অক্টোবরের ‘সি’ ও ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষা বর্জনের সিদ্ধান্ত বহাল রয়েছে।’

প্রসঙ্গত, শুক্রবার কলা ও আইন অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের মধ্য দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। এবার ‘বি’ ইউনিটে ৭২০টি আসনের বিপরীতে ৪০ হাজার ৬৩৪ শিক্ষার্থী আবেদন করেছেন। প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বেন প্রায় ৫৬ শিক্ষার্থী।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *