লন্ডন, ২৫ সেপ্টেম্বর : ছেলে  তারেক রহমান ও পুত্রবধূ জোবায়দা রহমানকে সঙ্গে নিয়ে লন্ডনে নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। পূর্ব লন্ডনের ফেয়ারলোপ ওয়াটার কান্ট্রি পার্কে এই অনুষ্ঠানে তার বক্তব্যের বেশিরভাগ অংশই নেতাকর্মীদের হৈ চৈ আর বিশৃঙ্খলার মধ্যে হারিয়ে গেছে।

বাংলাদেশে শুক্রবার ঈদ হলেও যুক্তরাজ্যের মুসলমানরা ঈদ করেছেন বৃহস্পতিবার। স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় ওই পার্কে বড় একটি তাঁবুর মধ্যে খালেদার শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় অনুষ্ঠানমঞ্চে উপস্থিত বিএনপিনেত্রীর হাতে ফুলের তোড়া তুলে দিয়ে শুভেচ্ছা জানানোর জন্য দীর্ঘসময় লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হয় অতিথিদের।

নেতাকর্মীরা মঞ্চের সামনে জড়ো হয়ে মোবাইল ফোন ও ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলতে থাকলে মঞ্চে উঠতে অতিথিদের বেগ পেতে হয়। এ সময় নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে অতিথিদের ধাক্কাধাক্কিও হয়। খালেদা জিয়ার বড় ছেলে বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তার স্ত্রী জোবাইদা রহমানও অনুষ্ঠানমঞ্চে উপস্থিত ছিলেন।

হৈ চৈ থামিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টায় যুক্তরাজ্য বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কয়সর এম আহমেদকে বার বার চিৎকার করতে শোনা যায়। শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে প্রবাসী নেতাকর্মীদের উদ্দেশে খালেদা জিয়া বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার বাংলাদেশকে ‘কারাগারে’ পরিণত করেছে। বিএনপির যত নেতাকর্মী আছে, প্রত্যেকের নামে মামলা দিয়েছে। এই হল বাংলাদেশ, যেখানে মানুষ ঠিক মত ঘুমাতে পারে না। কোথায় ঘুমাবে? দেশে কোনো মৌলিক অধিকার নাই, মানবাধিকার নাই, আইনের শাসন নেই, গণতন্ত্র নেই।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *