Search
Tuesday 17 May 2022
  • :
  • :

যুক্তরাষ্ট্রে শিশু হত্যার দায়ে দুই পুলিশ গ্রেপ্তার

যুক্তরাষ্ট্রে শিশু হত্যার দায়ে দুই পুলিশ গ্রেপ্তার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানা অঙ্গরাজ্যে গত বৃহস্পতিবার রাতে ছয় বছরের এক শিশুকে গুলি করে হত্যা করেছে দুই পুলিশ। শুক্রবার তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে বাবা ক্রিস ফিউর সঙ্গে গাড়িতে করে যাচ্ছিল শিশু জেরেমি মারডিস। দুই পুলিশ কর্মকর্তা নরিস গ্রিনহাউজ ও ডেরিক স্ট্যাডফোর্ড গাড়িটিকে পিছন দিক থেকে ধাওয়া করে। এক পর্যায়ে কোনো কারণ ছাড়াই তারা গাড়িটি লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। গুলিটি শিশুর গায়ে লেগে সঙ্গে সঙ্গেই তার মৃত্যু হয়। গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মারাত্মক আহত হন শিশুর বাবা ক্রিস। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের শরীরে থাকা ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে গাড়িটি লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ার কোনো কারণই ঘটেনি। এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে। বিনা কারণে শিশুটিকে হত্যার অভিযোগে ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

লুইজিয়ানা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা কর্নেল মাইকেল এডমনসন সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, এটা পরিষ্কার না, ওই দুই পুলিশ কেন গাড়িটির পিছু নিয়েছে আর কেনই বা গুলি করেছে।’

‘এ জাতীয় মৃত্যু জেরেমির প্রাপ্য ছিল না। আর পুলিশের এমনটা ঘটানোর কী প্রয়োজন ছিল।’

বডি-ক্যামেরার ফুটেজ উল্লেখ করে কর্নেল এডমনসন বলেন, ‘আমি তোমাকে বলতে পারি, তা ছিল আমার দেখা সবেচেয়ে বিরক্তিকর বিষয়।’

ফিউর সৎ বাবা মরিস জারমান বার্তা সংস্থা এপিকে বলেছেন, ‘জেরেমি ছিল খুবই উচ্ছল প্রকৃতির বালক। সে সবাইকে এবং সবকিছুকেই ভালোবাসত। সে ছিল অটিস্টিক। সে বাবা-মার একমাত্র সন্তান।’

তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন।




Leave a Reply

Your email address will not be published.