Search
Tuesday 24 May 2022
  • :
  • :

ময়নাতদন্ত সম্পন্ন : দীপনের শরীরে ৪টি আঘাতের চিহ্ন

ময়নাতদন্ত সম্পন্ন : দীপনের শরীরে ৪টি আঘাতের চিহ্ন

ঢাকা : জাগৃতি প্রকাশনীর কর্ণধার ও প্রকাশক ফয়সাল আরেফিন দীপনের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। দীপনের শরীরে ধারালো ও ভারি অস্ত্রের চারটি আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে এবং আঘাতের কয়েক মিনিটের মধ্যেই তার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক।

রবিবার সকালে ময়নাতদন্ত শেষে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত প্রধান এবং ময়নাতদন্তকারী ডাক্তার অধ্যাপক কাজী মোহাম্মদ আবু শামা সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি আরো বলেন, তার মাথার পেছনে ঘাড়ে তিনটি কোপের চিহ্ন রয়েছে। এর একটি ১১ ইঞ্চি দীর্ঘ ও চার ইঞ্চি গভীর। দীপনকে উপুড় করে ভারী ধারালো অস্ত্র দিয়ে ঘাড়ে কোপানো হয়েছে বলে আমার মনে হয়েছে। ওই জায়গায় এমন আঘাতের পর পাঁচ মিনিটের বেশি বেঁচে থাকা সম্ভব নয়।

তিনি বলেন, দীপনের পাকস্থলীতে যে খাবার ছিল-সেই খাবার মৃত্যুর এক ঘণ্টা আগের। অর্থাৎ দুপুরে খাওয়ার ঘণ্টা খানেকের মধ্যে তার মৃত্যু হয় বলে মনে হচ্ছে। সবগুলো হত্যাকাণ্ডে ভারী ও ধারালো অস্ত্রের ব্যবহার করা হয়েছে। দেখে মনে হয়েছে আক্রমণকারীদের টার্গেট থাকে ঘাড়।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আজ রবিবার হাসপাতাল থেকে দীপনের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় দীপনের স্ত্রীর কর্মস্থল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হলে। এরপর দুপুরে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ প্রাঙ্গণে। বাদ জোহর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে তার জানাজা হবে। পরে তাকে আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করা হবে।

শনিবার নৃশংস জোড়া হামলা চালিয়ে জাগৃতি প্রকাশনীর কর্ণধার ফয়সাল আরেফিন দীপনকে নিজ অফিস রাজধানীর শাহবাগে আজিজ সুপার মার্কেটে হত্যা এবং আরেক প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান শুদ্ধস্বরের প্রকাশক আহমেদুর রশীদ টুটুলসহ দুই কবি ও ব্লগারকে লালমাটিয়ায় প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান শুদ্ধস্বরের কার্যালয়ে গুরুতর আহত করে দুর্বৃত্তরা। দুটি ক্ষেত্রেই হামলার পর কার্যালয়ের দরজায় তালা ঝুলিয়ে দিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

এদিকে জাগৃতি প্রকাশনীর কর্ণধার ফয়সাল আরেফিন দীপনকে হত্যা এবং লালমাটিয়ায় প্রকাশক আহমেদুর রশিদ টুটুলসহ তিনজনকে গুলি করে ও কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় এখনো কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

১৪টি আলামত শাহবাগ থানায় হস্তান্তর
শাহবাগে আজিজ সুপার মার্কেটে প্রকাশক ফয়সাল আরেফিন দীপনকে কুপিয়ে হত্যার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তদন্তের জন্য ১৪টি আলামত সংগ্রহ করে শাহবাগ থানায় হস্তান্তর করেছে পুলিশের সিআইডি বিভাগ। শনিবার রাতে এ আলামত হস্তান্তর করা হয়।

আজিজ সুপার মার্কেটের জাগৃতি প্রকাশনীর টেবিল থেকে কিছু চুল, রক্তমাখা ভাঙা চশমা, মেঝে থেকে ডান পায়ের জুতাসহ বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, উভয় পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তির সময় চুলগুলো টেবিলে পড়েছে।

এদিকে আজিজ সুপার মার্কেটের তৃতীয় তলায় কোনো সিসি ক্যামেরা পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে সিআইডি।




Leave a Reply

Your email address will not be published.