Search
Thursday 17 January 2019
  • :
  • :

মন্ত্রিসভার শপথ ১০ জানুয়ারির আগেই: কা‌দের

মন্ত্রিসভার শপথ ১০ জানুয়ারির আগেই: কা‌দের

ঢাকা, ১ জানুয়ারি : আগামী ১০ জানুয়া‌রির আগেই নতুন ম‌ন্ত্রিসভার সদস্যদের শপথ হ‌তে পা‌রে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি ব‌লে‌ছেন, ১০ জানুয়ারি জা‌তির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মু‌জিবুর রহমা‌নের স্ব‌দেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের আগেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী জনপ্রতিনিধিদের শপথ গ্রহণ এবং নতুন মন্ত্রিসভা গঠিত হতে পারে।

মঙ্গলবার সকালে ধানম‌ন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপ‌তির রাজনৈতিক কার্যাল‌য়ে সাংবা‌দিক‌দের স‌ঙ্গে আলাপকা‌লে তিনি এসব কথা ব‌লেন।এর আগে তিনি প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় নেতাদের সঙ্গে ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

ওবায়দুল কাদের জানান, নতুন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের শপথগ্রহণের আগে গে‌জেট প্রকাশিত হ‌বে এবং তারা শপথ নেবেন। গে‌জে‌টের পর প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হা‌সিনা রাষ্ট্রপ‌তি আবদুল হামিদের স‌ঙ্গে সাক্ষাৎ কর‌বেন। সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন পাওয়া দ‌লের প্রধান হি‌সে‌বে রাষ্ট্রপ‌তি শেখ হা‌সিনা‌কে সরকার গঠন করার জন্য আহ্বান জানা‌বেন।

১০ জানুয়ারির কর্মসূচির বিষয়ে সেতুমন্ত্রী জানান, ১০ জানুয়া‌রি সকাল ৭টায় ধানম‌ন্ডির ৩২ নম্ব‌রে জা‌তির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মু‌জিবুর রহমানের প্র‌তিকৃ‌তি‌তে শ্রদ্ধা নি‌বেদন ও বিকালে কৃ‌ষি‌বিদ ইন‌স্টি‌টিউশ‌নে আলোচনা সভা হ‌বে। এতে প্রধান অ‌তি‌থি থাক‌বেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা। এছাড়া ৭ মার্চ পল্টন ময়দা‌নে জনসভা হ‌বে।

৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন বাতিল করে নতুন করে ভোটগ্রহণের যে দাবি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট করেছে সেটি প্রত্যাখ্যান করে আওয়ামী লীগ সাধারণ বলেন, ‘এটা কি মামা বাড়ির আবদার?’ এই ধরনের অযৌক্তিক দাবি পূরণ হওয়ার নয়।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের ভূমিধস জয় হয়েছে।আর মাত্র ৭ আসন পেয়ে ধরাশায়ী হয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। নির্বাচনকে প্রহসনমূলক ও ভোট ডাকাতির অভিযোগ এনে ৩০ ডিসেম্বরের ভোট বাতিল করে পুনঃনির্বাচনের দাবি করেছে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

এর জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, এটা কি মামা বাড়ির আবদার? একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হয়েছে উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, দেশী-বিদেশি পর্যবেক্ষকরা এই নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও অবাধ বলেছে।ভোটাররা স্বাচ্ছন্দ্যে ভোট দিয়েছে।ভোট উৎসব চলেছে ৩০ ডিসেম্বর।

নির্বাচনে বিএনপির ভরাডুবির বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তারা নির্বাচন করবেন কীভাবে? নির্বাচন করার মতো কোনো প্রস্তুতি তাদের কি ছিল? তারা ভোটের আগেই হাল ছেড়ে দিয়েছে।’

সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের যে উন্নয়ন, সমৃদ্ধির যে অগ্রযাত্রা তা অব্যাহত রাখব এবং আমাদের লক্ষ্যাভিমুখী আমরা এগিয়ে যাবো। নব নব বিজয়ে মুখরিত হবো।’ সূত্র: যুগান্তর