Search
Saturday 19 October 2019
  • :
  • :

বাংলাদেশকে হারিয়ে আফগানিস্তানের জয়

বাংলাদেশকে হারিয়ে আফগানিস্তানের জয়

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৬ সেপ্টেম্বর : ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে তৃতীয় ম্যাচে বাংলাদেশকে হারিয়ে দুর্দান্ত জয় তুলে নিয়েছে আফগানিস্তান। রোববার মিরপুর শেরে বাংলা ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শুরু হওয়া ম্যাচে বাংলাদেশকে ২৫ রানে হারায় আফগানরা।

আফগানদের দেয়া ১৬৫ রানের লক্ষ্য পাড়ি দিতে নেমে নির্ধারিত ১৯.৪ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৩৯ রানে থামে বাংলাদেশের ইনংস। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৪ রান আসে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ব্যাট থেককে।

এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে মোহাম্মদ নবীর ৫৪ বলে ৮৫ রানের ঝড়ো ইনিংসে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬৪ রান সংগ্রহ করে আফগানরা।

সাকিব-সাইফউদ্দিনের অ্যাকশনে শুরুতেই ৪০ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে আফগানিস্তান। প্রথম বলেই স্ট্যাম্প ওড়ালেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। ইনিংসের প্রথম ওভার করতে এসে প্রথম বলেই আফগান ওপেনার রহমানুল্লাহ গুরবাজের অফ স্ট্যাম্পে আঘাত হানেন সাইফ। ইনিংনের দ্বিতীয় ওভার করতে এসে দ্বিতীয় বলে হযরতউল্লাহ জাজাইকে ১ রানে ফেরান সাকিব আল হাসান। নিজের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে নাজিব তারাকাইকে বাউন্ডারিতে সাব্বির রহমানের ক্যাচ বানিয়ে নিজের দ্বিতীয় শিকার তুলে নেন সাইফউদ্দিন। ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে নাজিবুল্লাহ জাদরানকে সাকিব ফেরালে মোটামুটি ভালো চাপে পড়ে আফগানিস্তান।

সেখান থেকে দলকে বিপদমুক্ত করার দায়িত্ব নেন নবী ও আসগর। দুজনের ৭৯ রানের জুটিতে দলকে ম্যাচেও ফেরান দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। ৩৭ বলে ৪০ রান করে আফগান ফিরলেও রীতিমতো ঝড় তোলেন নবী। ৫৪ বলে ৭ ছক্কা ও ৩ চারে ৮৫ রানের অপরাজিত ঝড়ো ইনিংস খেলেন নবী। আসগর-নবীর ব্যাটে ওপর ভর করে বাংলাদেশের সামনে ১৬৪ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য দাঁড় করায় আফগানিস্তান।

বাংলাদেশী বোলারদের মধেঘ্য সাইফউদ্দিন ৪টি ও সাকিব ২টি উইকেট শিকার করেন।

আফগানিস্তানের দেয়া ১৬৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় বলেই লিটন দাসের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। মুজিবুর রহমানের করা ইনিংসের প্রথম ওভারের দ্বিতীয় বলেই নাজিব তারকাইকে ক্যাচ দিয়ে শূন্য রানে ফেরেন লিটন। দ্বিতীয় ওভারে ফারিদ মালিকের বোল্ডের শিকার হয়ে ব্যকিত্গত ৫ রানে ফেরেন মুশফিক। দরীয় ৩০ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ১৫ রানে মুজিবের বলে রশিদকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন সাকিব। ব্যাট করতে মুজিবের ঘূর্ণি ফাঁদে এলবিডব্লিউর মিকার হয়ে নেমে শূন্য রানে সাজঘরে ফেরেন সৌম্য সরাকার।

৩২ রানে ৪ উ্ইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ার পর মাহমমুদুল্লাহ রিয়াদ ও সাব্বির রহমানের ব্যাটে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করে বাংলাদেশ। ৫৮ রানের জুটি বাংলাদেশকে কিছুটা চাপমুক্ত করলেও ৯০ রানের মাথায় মাহমুদুল্লাহ আউট হলে আবারো চাপে থাকতে হয় বাংলাদেশকে। ৩৯ বলে ৪৪ রান আসে মাহমুদুল্লাহর ব্যাট থেকে। ২৭ বলে ২৪ রান করে মুজিবের ৪র্থ শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন সাব্বির। শেষ দিকে আফিফ হোসেনের ১৬, মোস্তাফিজুর রহমানের ১৫ ও মোসাদ্দেকের ১২ রান দলের জয়ের জন্য যথেষ্ট ছিল না। ব্যাটসম্যানদের বর্থতায় মূলত বাংলাদেশের হাত ছাড়া হয় ম্যাচটি।

দুই ম্যাচে দুই জয়ে সিরিজে পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে উঠে আসল আফগানিস্তান। আর বাংলাদেশ সমানসংখ্যক ম্যাচে েএক জয়ে দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছে বাংলাদেশ।

এই জয়ে আফগানিস্তান টানা ১২ট টি-য়েন্টি ম্যাচ জয়ের রেকর্ডও গড়ল।

আফগান বোলারদের মধ্যে মুজিবুর রহমান ৪টি, রশিদ খান, গুলবাদিন নায়েব ও ফারিদ আল আলম ২টি করে উইকেট শিকার করেন।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : মোহাম্মদ নবী