Search
Tuesday 17 May 2022
  • :
  • :

পাঁচ কোম্পানির লভ্যাংশ ঘোষণা

পাঁচ কোম্পানির লভ্যাংশ ঘোষণা

শেয়ারবাজার ডেস্ক : তালিকাভুক্ত পাঁচ কোম্পানি আমান ফিড, ডেসকো, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, ফু-ওয়াং ফুড ও মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড গতকাল ৩০ জুন ২০১৫ সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আমান ফিড: এ বছরই শেয়ারবাজারে আসার পর প্রথমবারের মতো লভ্যাংশ ঘোষণা করল বিবিধ খাতের কোম্পানিটি। পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্ত অনুসারে উদ্যোক্তা ছাড়া বাকি সব শেয়ারহোল্ডারকে ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেবে আমান ফিড। আর সব ধরনের শেয়ারহোল্ডারকে ২০ শতাংশ বোনাস শেয়ার দেবে কোম্পানিটি।

আগামী ১৪ ডিসেম্বর বেলা ১১টায় সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার সিংহগাতিতে অবস্থিত কারখানা প্রাঙ্গণে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আয়োজন করবে কোম্পানি। রেকর্ড ডেট ১১ নভেম্বর।

গেল হিসাব বছরে আমান ফিডের নিট মুনাফা হয়েছে ৩০ কোটি ৫৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা, শেয়ারপ্রতি আয় ৫ টাকা ৭ পয়সা। শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৩৫ টাকা ৯০ পয়সা। ভবিষ্যতে নিয়মিত লভ্যাংশের জন্য সংরক্ষিত তহবিলে ৭৫ কোটি টাকা সরিয়ে রাখারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ।

ডেসকো: রাষ্ট্রায়ত্ত বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানিটি ১০ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এজিএম ২ জানুয়ারি, রেকর্ড ডেট ১২ নভেম্বর। নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে ডেসকোর বার্ষিক ইপিএস ৪ টাকা ৩২ পয়সা এবং এনএভিপিএস ৩৪ টাকা ১৬ পয়সা।

স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক: শুধু সাধারণ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে কোম্পানিটি। কোম্পানির উদ্যোক্তা বা পরিচালকরা এ লভ্যাংশ পাবেন না।

জানা গেছে, উদ্যোক্তা-পরিচালকদের হাতে কোম্পানিটির ৩০ লাখ ৭৫ হাজার ২০টি শেয়ার রয়েছে।

আগামী ২৩ ডিসেম্বর গাজীপুরের জয়দেবপুরে অবস্থিত কোম্পানির কারখানা প্রাঙ্গণে এ কোম্পানির এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১২ নভেম্বর।

গেল হিসাব বছরে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৫০ পয়সা, এনএভিপিএস ১৪ টাকা ৩৬ পয়সা।

২০১৪ সালেও কোম্পানিটি শুধু সাধারণ শেয়ারহোল্ডারদের ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল। সে সময় কোম্পানিটির ইপিএস ও এনএভিপিএস ছিল যথাক্রমে ৬২ পয়সা ও ১৫ টাকা ৮২ পয়সা।

প্রসঙ্গত, জুলাইয়ে কারখানায় নতুন যন্ত্রপাতি স্থাপনের খবর দেয় রফতানিমুখী সিরামিক প্রতিষ্ঠানটি। ঘোষণা অনুসারে, মোট ৪৬ লাখ ২৫ হাজার টাকা ব্যয়ে কারখানায় বিভিন্ন প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি বসিয়েছে কোম্পানিটি। এতে পণ্যের গুণগত মান ও উৎপাদন সক্ষমতা বৃদ্ধির ব্যাপারে আশাবাদী এর পরিচালনা পর্ষদ। এ বিনিয়োগ তাদের বার্ষিক উৎপাদন ক্ষমতা ৭০০ টন বাড়াবে।

ফু-ওয়াং ফুড: ১৫ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। সমাপ্ত হিসাব বছরে এর ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৫২ পয়সা, এনএভিপিএস ১৩ টাকা ৬১ পয়সা।

২৭ ডিসেম্বর রাজধানীর মহাখালীতে অবস্থিত রাওয়া কনভেনশন হলে এর এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। রেকর্ড ডেট ১৯ নভেম্বর।

ডিএসইতে গতকাল এ শেয়ারের দর ৫ দশমিক ৮২ শতাংশ বা ১ টাকা ১০ পয়সা বেড়ে দাঁড়ায় ২০ টাকা। গত এক মাসে এর সর্বনিম্ন দর ছিল ১৮ টাকা ৯০ পয়সা ও সর্বোচ্চ ২১ টাকা ৮০ পয়সা। ছয় মাসে এর সর্বনিম্ন দর ছিল ১৮ টাকা ১০ পয়সা ও সর্বোচ্চ ২৪ টাকা ৫০ পয়সা।

২০১৪ সালে ১০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ দেয় কোম্পানিটি। সে সময় ইপিএস হয় ৯১ পয়সা, এনএভিপিএস ১২ টাকা ৭৪ পয়সা।

মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ: ৭ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। সমাপ্ত হিসাব বছরে এর ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৬৮ পয়সা, এনএভিপিএস ৪৮ টাকা ২৩ পয়সা এবং কর-পরবর্তী মুনাফার ৪ কোটি ২৬ লাখ ৩০ হাজার টাকা। ১৯ ডিসেম্বর গাজীপুরের কারখানা প্রাঙ্গণে এর এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। রেকর্ড ডেট ১২ নভেম্বর।

গতকাল সম্পদ পুনর্মূল্যায়নের খবর দিয়েছে বিবিধ খাতের কোম্পানিটি। এর পরিচালনা পর্ষদ ৮৯ কোটি ৭১ লাখ ২০ হাজার টাকার সম্পদ পুনর্মূল্যায়নজনিত উদ্বৃত্ত অনুমোদন করেছে। ৩০ জুন কোম্পানির নিট সম্পদমূল্য দাঁড়ায় ১২১ কোটি ১২ লাখ ৬০ হাজার টাকা।

করপোরেট ঘোষণাকে কেন্দ্র করে গতকাল এ কোম্পানির শেয়ারদরে হ্রাস-বৃদ্ধির কোনো সীমা নির্ধারিত ছিল না। ডিএসইতে এদিন মিরাকল শেয়ারের দর ৩৯ দশমিক ৬৩ শতাংশ বেড়ে দাঁড়ায় ২২ টাকা ৯০ পয়সা।




Leave a Reply

Your email address will not be published.