Search
Sunday 22 May 2022
  • :
  • :

জিম্বাবুয়ে সিরিজে স্পিনেই আস্থা বাংলাদেশের

জিম্বাবুয়ে সিরিজে স্পিনেই আস্থা বাংলাদেশের

স্পোর্টস ডেস্ক : ইনজুরির কারণে প্রাথমিক দল থেকে বাদ পড়েছেন বাংলাদেশ দলের অন্যতম সেরা পেসার রুবেল হোসেন। তাসকিন আহমেদ ও টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মুর্তজাও সদ্য ইনজুরি কাটিয়ে উঠেছেন। সে কারণে জিম্বাবুয়ে সিরিজে পেসারদের নিয়ে একটু সংশয় থেকেই যাচ্ছে।

বাংলাদেশ সর্বশেষ চার ওয়ানডে সিরিজের চারটিতেই জিতেছে। এ জয়ে ভূমিকা রেখেছিলেন পেসার ও স্পিনাররা। তবে জিম্বাবুয়ে সিরিজে স্পিনারদের ওপরই বেশি ভরসা রাখতে চাইছেন জাতীয় দলের নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।

গত বছরের নভেম্বরে বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ খেলতে এসে স্পিনেই ধরাশায়ী হয়েছিলো জিম্বাবুয়ে। সাকিব-তাইজুলদের ঘূর্ণিতে দুই ফরম্যাটেই ধবলধোলাই হয়েছিলো সফরকারীরা। এবারও সেই স্পিনেই ছক আঁটছে বাংলাদেশ।

শুক্রবার এ প্রসঙ্গে মিনহাজুল আবেদিন বলেন, ‘দেশের মাটিতে সবসময়ই আমরা স্পিনের উপর বেশি নির্ভর করি। স্পিন এবং স্লো বোলার দিয়ে আমরা প্রতিপক্ষকে ধরাশায়ী করার চিন্তা-ভাবনা করি। সে হিসেবে আমাদের প্ল্যানটা এরকমই থাকবে। স্পোর্টিং উইকেটের চেয়ে একটু স্লো উইকেট করলে আমাদের জন্য সুবিধা। জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানদের জন্য স্লো উইকেটে ব্যাটিং করা কষ্টকর। কারণ ওদের ওখানে বাউন্স বেশি থাকে। তারা বাউন্সি উইকেটে অভ্যস্ত।’

জিম্বাবুয়ের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স বেশ খারাপ হলেও বাংলাদেশ সফরে এসে ঘুরে দাঁড়াতে পারে বলে মনে করেন মিনহাজুল। জিম্বাবুয়ে দলটি খেলার মধ্যে থাকাতেই এরকম মনে করছেন তিনি, ‘জিম্বাবুয়ে তাদের মাটিতে অনেকগুলো ম্যাচ খেলেছে। সে হিসেবে আমরা আন্তর্জাতিক ম্যাচ থেকে অনেক দূরে আছি। বিশেষ করে, দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের পর একটা বিরতি গেছে। আফগানিস্তানের সঙ্গে সিরিজ হারায় মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছে জিম্বাবুয়ে। তবে যেহেতু তারা একটা টেস্ট প্লেয়িং দেশ, যথেষ্ট অভিজ্ঞতাও আছে এই  দলের। আমার মনে হয়, বাংলাদেশে আসলে তাদের ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা থাকবে।’

১৮ সদস্যের প্রাথমিক দলে জায়গা পেয়েছেন নতুন মুখ কামরুল ইসলাম। তাসকিন, শফিউলরাও ফিরেছেন ইনজুরি কাটিয়ে। মাশরাফি ও মুস্তাফিজকে নিয়ে দলে রয়েছে পাঁচ পেসার। এত পেসারের মাঝে কামরুল ইসলামের চূড়ান্ত স্কোয়াডে থাকার সম্ভাবনা কতটুকু?

এ বিষয়ে এ নির্বাচক বলেন, ‘ওকে একটা প্ল্যানের মধ্যে রেখেছি বলেই ‘এ’ দলে খেলাচ্ছি। ও যথেষ্ট ভালো খেলছে। আমি এখন বিশ্বাস করি ওর সক্ষমতা আছে ১৪ জনের দলে থাকার এবং ভালো করার। দেখা যাক, আমরা ২-৩ দিনের মধ্যে দল ঘোষণা করব।’




Leave a Reply

Your email address will not be published.