Search
Monday 8 March 2021
  • :
  • :

চোটে জর্জরিত ভারতের সামনে ক্ষুধার্ত অস্ট্রেলিয়া

চোটে জর্জরিত ভারতের সামনে ক্ষুধার্ত অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৪ জানুয়ারি : অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে শুক্রবার শুরু হতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া আর ভারতের মধ্যকার চতুর্থ ও শেষ টেস্ট। চার ম্যাচের সিরিজ এখন ১-১ এ সমতায় আছে। সিডনি টেস্টের রোমাঞ্চকর ড্রয়ের পর এই টেস্টটিই এখন হয়ে দাঁড়িয়েছে সিরিজ নির্ধারণী দুই দলেরই জন্য। তবে এই টেস্টে ভুগতে হচ্ছে ভারতীয় দলকে।

অবস্থা এখন এমন যে, শুক্রবার থেকে শুরু হতে যাওয়া গ্যাবা টেস্টে একাদশ গড়তেও যেন হিমশিম খেতে হচ্ছে ভারতকে। ইনজুরির কারণে একে একে ছিটকে গেছেন পেসার মোহাম্মদ শামি, জসপ্রীত বুমরাহ, অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজা, উইকেটরক্ষক রিশাভ পন্থ, হনুমা বিহারি, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, লোকেশ রাহুল, মায়াঙ্ক আগাওয়াল।

কন্যাসন্তানের বাবা হওয়ায় দলের সঙ্গে নেই নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলিও। এমতাবস্থায় জোড়াতালির দল নিয়েই ব্রিসবেন টেস্টে মাঠে নামবে টিম ইন্ডিয়া। অপরদিকে অস্ট্রেলিয়া তাদের পূর্ণ শক্তির দলই পাচ্ছে। ইনজুরির কারণে প্রথম দুই টেস্ট মিস করা ডেভিড ওয়ার্নার দলে ফেরাতে অস্ট্রেলিয়া দলের শক্তি আরো বেড়েছে বলতেই হয়।

ব্রিসবেন টেস্টে মূলত হয়ে উঠতে পারে পেসারদের টেস্ট। এই গ্রাউন্ড পেসারদের স্বর্গরাজ্য বলা যায়। এইক্ষেত্রে অজি পেসার প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক আর জস হ্যাজলউডরা জ্বলে উঠলে ভঙ্গুর ভারতীয় ব্যাটিং লাইনআপের জন্য বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারেন। কিন্তু অভিজ্ঞ অজি পেসারদের বিপরীতে একেবারে নতুন আনকোরা ভারতীয় পেসাররা কি করে তা এখন দেখার বিষয়।

ইনজুরির কারণে ইতোমধ্যে ছিটকে গেছেন দলের অন্যতম দুই পেসার মোহাম্মদ শামি ও জসপ্রীত বুমরাহ। তাদের জায়গায় অনভিজ্ঞ মোহাম্মদ সিরাজ, নটরাজন, নবদীপ সাইনি ও শারদুল ঠাকুর কতটুকু কি করবেন তাই এখন দেখার বিষয়।

প্রথম টেস্টে লজ্জার পরাজয়ের পর দ্বিতীয় টেস্টে দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়ায় ভারতীয় দল। অধিনায়ক বিরাট কোহলির অনুপস্থিতের পরও আজিঙ্কা রাহানের বুদ্ধিদীপ্ত অধিনায়কত্বে অজিদের হারিয়ে সিরিজে সমতায় ফেরে সফরকারীরা। দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি করে ক্যাপটেনস নক উপহার দেন রাহানে। পরের টেস্টে সিডনিতে এক রোমাঞ্চকর ড্র করে তাক লাগিয়ে দেয় ভারত।

হনুমা বিহারি আর রবীচন্দ্রন অশ্বিনের ধৈর্যশীল ব্যাটিংয়ের কাছে সেদিন ভালোভাবেই মার খায় অস্ট্রেলিয়ান বোলিং লাইনআপ। টেস্ট ক্রিকেটের ব্যাটিং কেমন হওয়া উচিত সেটিই করে দেখালেন সেদিন বিহারি আর অশ্বিন জুটি। তবে শেষ পর্যন্ত এই টেস্টেও ছিটকে গেছেন এই দুজন। চোটের লাইন এত দীর্ঘ যে সাবেক ভারতীয় টেস্ট ক্রিকেটার বিরেন্দার শেবাগ তার টুইটারে টুইট করে বলেছেন তিনি খেলতে প্রস্তুত।

শেবাগ বলেন, ‘এতজন খেলোয়াড় ইনজুরিতে। যদি একাদশ সাজানো না যায়, তাহলে আমি অস্ট্রেলিয়া যেতে রাজি আছি। কোয়ারেন্টাইনের বিষয়টা দেখা যাবে।’

অস্ট্রেলিয়া দলের কোনো সমস্যা নেই বললেই চলে। সিডনি টেস্টে দুটি ক্যাচ ফেলে অনুতাপে ভুগছেন অধিনায়ক টিম পেইন। ভারতীয় দলের ইনজুরির ব্যাপার নিয়ে অজি দলের হেড কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার আইপিএলকে দোষারোপ করছেন।

তার মতে, ‘ইনজুরির মিছিলের দায়টা আসলে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ক্রিকেটের। কেননা প্রায় পৌনে দুই মাস লম্বা টুর্নামেন্ট খেলে তেমন একটা বিশ্রাম না নিয়েই অস্ট্রেলিয়া সফরে এসেছে ভারতের খেলোয়াড়রা। যা তাদের ইনজুরি শঙ্কা বাড়িয়েছে বহুগুণে।’

এ বিষয়ে অজি কোচ বলেন, ‘আমি আগে থেকেই বলে আসছি, ফিটনেসের দিক থেকে যারা এগিয়ে তারাই এবারের গ্রীষ্ম মৌসুমের ক্রিকেটটা ভালোভাবে খেলতে পারবে। এবারের গ্রীষ্ম মৌসুমে এত বেশি ইনজুরি আক্রান্ত হওয়াটা সত্যিই অন্যরকম। আমরা সাদা বলের সিরিজের সময় এর ভুক্তভোগী হয়েছি।’

শুধু ভারত নয়, আইপিএলের কারণে ভুগতে হয়েছে অস্ট্রেলিয়াকেও। সীমিত ওভারের সিরিজে দলের অন্যতম সেরা দুই তারকা মার্কাস স্টয়নিস ও ডেভিড ওয়ার্নারকে পুরো সময়ের জন্য পায়নি স্বাগতিকরা। এমনকি টেস্ট সিরিজেও প্রথম দুই ম্যাচ খেলতে পারেননি ওয়ার্নার। তারা দুজনই নিজ নিজ দলের হয়ে খেলেছিলেন আইপিএলের পুরো আসর।

ল্যাঙ্গার আরো যোগ করেন, ‘এ বিষয়ে আমার কিছু করার নেই। তবে আমি মনে করি, এবারের আইপিএলের সূচিটা দুই দলের কারো জন্যই আদর্শ ছিল না। বিশেষ করে এত বড় একটা সিরিজের আগে। এমন না যে আমি আইপিএল অপছন্দ করি। এটা আমার কাছে কাউন্টি ক্রিকেটের মতোই। কিন্তু এবারের আসরের সময়সূচি যুতসই ছিল না।’