স্পোর্টস ডেস্ক, ১৭ সেপ্টেম্বর : এভাবেই ক্যামেরাবন্দী হয়ে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে গিয়েছিলেন তিনি। হয়ে উঠেছিলেন পরিচিত মুখ। ফাইল ছবিক্লভিস আকোস্তা ফার্নান্দেজের কথা মনে আছে? হলুদ জার্সি পরা সাদা পুরুষ্ট গোঁফের মানুষটা জাপটে ধরে আছেন বিশ্বকাপের রেপ্লিকা। যেন কেউ কেড়ে নিতে চাইছে, কিন্তু কিছুতেই ছাড়বেন না। সঙ্গে ফুঁপিয়ে কান্না।

গত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ার পর এভাবেই কেঁদেছিলেন ব্রাজিলীয় সমর্থক ফার্নান্দেজ। এবার প্রিয়জনদের কাঁদিয়ে নিজেই চলে গেলেন পৃথিবী ছেড়ে।
মৃত্যুর সময় বয়স হয়েছিল ৬০ বছর। ব্রাজিলের জনপ্রিয় পত্রিকা ‘গ্লোবো’ জানিয়েছে, নয় বছর ধরে তিনি ক্যানসারের সঙ্গে লড়ছিলেন।

ফার্নান্দেজের সে দিনের বিষণ্ন মুখের ছবি মুহূর্তেই ছড়িয়ে পড়েছিল গোটা বিশ্বে। দুঃখে ভরা সে মুখের ছবি ছুঁয়ে গিয়েছিল ফুটবলপ্রেমীদের মন। বড় টুর্নামেন্টগুলোয় ব্রাজিলের ম্যাচ থাকলেই নিয়মিতই দেখা যেত গ্যালারিতে। এ কারণে হয়ে উঠেছিলেন ‘তারকা দর্শক’! এখন থেকে আর ব্রাজিলের ম্যাচে দেখা যাবে না তাঁকে।

১৯৯০ বিশ্বকাপ থেকেই নিয়মিত গ্যালারিতে বসে ব্রাজিলের খেলা দেখছেন ফার্নান্দেজ। সাতটি বিশ্বকাপের বাইরে অভিজ্ঞতার ঝুলিতে রয়েছে ছয়টি কোপা আমেরিকা, চারটি কনফেডারেশন কাপ ও একটি অলিম্পিক। দীর্ঘ এ সময়ে ব্রাজিলের বহু ইতিহাসের সাক্ষী। তবে ফার্নান্দেজের বড় দুঃখ, ঘরের মাঠে ‘হেক্সা’ জিততে পারল না সেলেসাওরা। আরও অনেক ব্রাজিলিয়ানের মতো দুঃখটা চোখের জল হয়ে বেরিয়েছিল সেদিন।

ক্যানসারের সঙ্গেও লড়ে যাচ্ছিলেন ফুটবলের শক্তি সঙ্গে নিয়ে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত হারই মানতে হলো লড়াইটায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *