Search
Friday 19 October 2018
  • :
  • :

কমলাপুরে দ্বিতীয় দিনও উপচেপড়া ভিড়

কমলাপুরে দ্বিতীয় দিনও উপচেপড়া ভিড়

ঢাকা, ৯ আগস্ট : ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রির দ্বিতীয় দিনেও কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে। টিকিটের প্রত্যাশায় বিভিন্ন রুটের যাত্রীরা রাত থেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। প্রতিটি কাউন্টারের সামনে থেকে টিকিট প্রত্যাশীদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে।

আজ বৃহস্পতিবার বিক্রি হচ্ছে ১৮ আগস্টের টিকিট। এভাবে ১০ আগস্ট ১৯ আগস্টের, ১১ আগস্ট ২০ আগস্টের ও ১২ আগস্ট ২১ আগস্টের অগ্রিম টিকিট দেয়া হবে। ১৫ আগস্ট ২৪ আগস্টের, ১৬ আগস্ট ২৫ আগস্টের, ১৭ আগস্ট ২৬ আগস্টের, ১৮ আগস্ট ২৭ আগস্টের ও ১৯ আগস্ট ২৮ আগস্টের ফিরতি টিকিট দেয়া হবে বলে জানান রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

কাউন্টারের সামনে গিয়ে দেখা গেছে, ভোর থেকেই অনেকে এসে লাইনে দাঁড়ান। প্রতিটি কাউন্টারের সামনে থেকে টিকিটপ্রত্যাশীদের দীর্ঘলাইন গিয়ে ঠেকেছে স্টেশনের বাইরে। সেখানে শুধু টিকিটপ্রত্যাশী মানুষ আর মানুষ। বিগত বছরগুলোর মতো এবারও ১০ দিন আগে থেকে শুরু হয়েছে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের ম্যানেজার সীতাংশু চক্রবর্তী বলেন, আগাম টিকিট বিক্রিতে যেন কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে তার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ রেলওয়ের নিজস্ব বাহিনী তৎপর রয়েছে।

ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় সকাল ৮টা থেকে টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। কমলাপুর টিকিট কাটার জন্য যে ২৬টি কাউন্টার খোলা হয়েছে, তার মধ্যে দুটি নারীদের জন্য সংরক্ষিত।

রেল সূত্রে জানা যায়, এবারও মোট টিকিটের ৬৫ শতাংশ দেয়া হচ্ছে কাউন্টার থেকে। বাকি ৩৫ শতাংশের ৩০ শতাংশ অনলাইন ও মোবাইলে। ৫ শতাংশ ভিআইপি ছাড়াও রেল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দ রয়েছে।

কালোবাজারে টিকিট বিক্রি রোধে তৎপর রয়েছেন র‌্যাব, পুলিশ, রেলওয়ে পুলিশ ও আনসার সদস্যরা। এবার প্রতিদিন কমলাপুর থেকে সারাদেশের উদ্দেশে মোট ৬৬টি ট্রেন ছেড়ে যাবে। এর মধ্যে ৩২টি আন্তঃনগর, বাকিগুলো মেইল ও স্পেশাল সার্ভিস।