Search
Saturday 30 May 2020
  • :
  • :

ইউরোপের পাঁচ দেশে মৃতের সংখ্যা ২৬ হাজার ছাড়াল

ইউরোপের পাঁচ দেশে মৃতের সংখ্যা ২৬ হাজার ছাড়াল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২ এপ্রিল : ইউরোপজুড়ে করোনাভাইরাসে ইতোমধ্যেই মৃতের সংখ্যা ৩০ হাজার ছাড়িয়েছে। ইতালিতে এ সংখ্যা ৭ হাজার ৫০৩ হলেও স্পেন এ সংখ্যায় চীনকে ছাড়িয়েছে আল-জাজিরা

গত তিন মাসে ধরে বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক সৃষ্টিকারী নভেল করোনাভাইরাসের আগ্রাসী ছোবলে ইউরোপের দেশ ইতালি, স্পেন, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য ও জার্মানি মিলিয়ে পাঁচটি দেশে ৩১ মার্চ মঙ্গলবারে কমপক্ষে ২৬ হাজার ৬২০ জন মারা গেছেন। সবচেয়ে বেশি মৃতের সংখ্যা ইতালিতে। মঙ্গলবার পর্যন্ত ইতালিতে মৃতের সংখ্যা ১২ হাজার ৪২৮, স্পেনে ৮ হাজার ২৬৯, ফ্রান্সে ৩ হাজার ৫২৩, যুক্তরাজ্যে ১ হাজার ৮শ ৮জনসহ জার্মানিতে মারা গেছেন ৫৮৩ জন।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, মঙ্গলবার পর্যন্ত বিশ্বের ২০০টি দেশ ও অঞ্চলে কোভিড-১৯ ছড়িয়ে পড়েছে। ভাইরাস সংক্রমণের সংখ্যা ৮ লাখ ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে ৪২ হাজার ১৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসা গ্রহণের পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন এক লাখ ৭৮ হাজার ১১৯ জন।

৪ ঘণ্টায় ইতালিতে আরও ৮৩৭ জনের মৃত্যু

করোনায় সৃষ্ট কোভিড-১৯ রোগে গত ২৪ ঘণ্টায় ইউরোপের পশ্চিমাঞ্চলীয় দেশ ইতালিতে আরও ৮৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ১২ হাজার ৪২৮ জনে। মঙ্গলবার সংবাদ মাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের বরাতে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটার এ তথ্য জানায় ।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, করোনার উৎপত্তিস্থল চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর সংখ্যা ইতালিতে। দেশটিতে এখনও পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৫ হাজার ৭০২ জন। চিকিৎসাধীন আছেন ৭৭ হাজার ৬৩৫ জন। চিকিৎসাধীন ৭৭ হাজার ৬৩৫ জনের মধ্যে প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছেন ৭৩ হাজার ৬১২ জন। বাকি ৪ হাজার ২৩ জনের অবস্থা গুরুতর। অন্যদিকে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৫ হাজার ৭২৯ জন।

স্পেনে মৃত্যু ছাড়িয়েছে ৮ হাজার

করোনায় স্পেনে সর্বশেষ মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮ হাজার ২৬৯ জনে দাঁড়িয়েছে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৮৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।এর আগে মঙ্গলবার স্পেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা। এক প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৯৪ হাজার ৪১৭ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৯ হাজার ২৫৯ জন। বাকি চিকিৎসাধীন ৬৬ হাজার ৯৬৯ জনের মধ্যে প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছেন ৬১ হাজার ৩৬২ জন। ৫ হাজার ৬০৭ জনের অবস্থা গুরুতর।

ফ্রান্সে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩ হাজার ৫৩২

অপরদিকে পশ্চিম ইউরোপের দেশ ফ্রান্সে করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৯৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতেএ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়ার পর একদিনে এটিই সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। মঙ্গলবার পর্যন্ত দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৫৩২ জনে। এতে করে মৃতের সংখ্যায় ভাইরাসটির উৎপত্তিস্থল চীনকে (৩ হাজার ৩০৯) ছাড়িয়ে গেলো দেশটি।

সংবাদ মাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফ্রান্স সরকার শুধু হাসপাতালে মৃতদের সংখ্যা জানাচ্ছে। হাসপাতাল ছাড়াও দেশটির অন্য সব স্থানেও মানুষের মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। ফলে বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছেন, মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

মঙ্গলবার ফ্রান্সের স্বাস্থ্য পরিচালক জানিয়েছেন, দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৫২ হাজার ১২৮ জনে দাঁড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নিবীড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিউ) রাখা হয়েছে ৫৮৮ জনকে। ৫ হাজার ৫৬৫ জন আছেন আইসিউতে। এছাড়াও ফ্রান্সে একদিনে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৪৩৭৬ জন। এ নিয়ে দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হলো ৪৪ হাজার ৫৫০ জন।

ফ্রান্সের সরকারি কর্তৃপক্ষ আগের দিন সোমবার (৩০ মার্চ) তাদের হালনাগাদ তথ্য জানিয়ে বলেছে, একদিনে সর্বোচ্চ ৪ শতাধিক মানুষের মৃত্যুর পর করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর মিছিলে নাম লেখানো মানুষের সংখ্যা এখন ৩ হাজার ২৪ জন। তবে আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৭ হাজার ৯২৭ জন। আক্রান্তদের মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ২০ হাজার ৮৪৬ জন, এরমধ্যে ৫ হাজার ৫৬ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসা চলছে তাদের।

যুক্তরাজ্যে ২৪ ঘণ্টায় ৩৯৩ জনের মৃত্যু

এদিকে করোনার সংক্রমণে সৃষ্ট কোভিড-১৯ রোগে ইউরোপের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় দেশ যুক্তরাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৯৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে দিয়ে দেশটিতে ভাইরাস সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১ হাজার ৮০৮ জন। মঙ্গলবার দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগের কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানায় আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। জানানো হয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাজ্যের ইংল্যান্ডে ৩৬৭ জন, স্কটল্যান্ডে ১৩ জন, ওয়েলসে ৭ জন এবং উত্তর আয়ারল্যান্ডে ৬ জনের ভাইরাস সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে।

দেশটিতে প্রথম ৩০ জানুয়ারি ভাইরাস সংক্রমণের পর ব্রিটিশ যুবরাজ প্রিন্স চার্লস, প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানককসহ এ পর্যন্ত দেশটিতে ২২ হাজারেরও বেশি রোগী কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে ১৩৫ জন সুস্থ হয়েছেন।

জার্মানিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬১৯১৩

পশ্চিম ইউরোপের অপর দেশ জার্মানিতে এখনও পর্যন্ত ৬১ হাজার ৯১৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে । এর মধ্যে মারা গেছেন ৫৮৩ জন। জার্মানির সংক্রামক রোগ গবেষণা প্রতিষ্ঠান রবার্ট কচ ইনস্টিটিউটের (আরকেআই) পরিসংখ্যানের বরাতে এ তথ্য জানা গেছে। মঙ্গলবার আরকেআই-এর বরাতে এ তথ্য জানিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে বলেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আরও ৪ হাজার ৬১৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে এবং মারা গেছেন ১২৮ জন।