Search
Thursday 19 May 2022
  • :
  • :

আবুল মাল আবদুল মুহিতের দাফন রোববার ; সিলেট আওয়ামী লীগের ২ দিনের শোক কর্মসূচি

আবুল মাল আবদুল মুহিতের দাফন রোববার ; সিলেট আওয়ামী লীগের ২ দিনের শোক কর্মসূচি

সিলেট : মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, ভাষা সৈনিক, সাবেক অর্থমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল মাল আবদুল মুহিতকে রোববার সিলেটে সমাহিত করা হবে। তার মৃত্যুতে সিলেট আওয়ামী লীগ দুইদিনের শোক কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

শনিবার দুপুরে নগরীর হাফিজ কমপ্লেক্সে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের জরুরী সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন বাসসকে একথা জানান।

রোরবার বেলা ২টায় সিলেট সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে এ এম এ মুহিতের সর্বশেষ জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে রোববার দুপুর ১২টায় তার মরদেহ সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য তার পছন্দে নির্মিত সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে নেয়া হবে। জানাজা শেষে মুহিতের ইচ্ছানুযায়ী রায়নগরে ডিপুটি বাড়িতে মরহুমের পারিবারিক কবরস্থানে পিতা-মাতার কবরের পাশে তাকে সমাহিত করা হবে।

ঢাকার আনুষ্ঠানিকতা শেষে আজ বিকেলে সিলেটের উদ্দেশ্যে সড়ক পথে মুহিতের মরদেহে রওয়ানা করেছে, রাতে নিজ বাসভবন সিলেট নগরীর হাফিজ কমপ্লেক্স তার মরদেহ পৌঁছানোর কথা রয়েছে। রোববার জানাজা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সিলেটের ঐতিহাসিক আলিয়া মাদ্রাসা মাঠ প্রস্তুতির কাজ শুরু করেছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন।

এদিকে সাবেক অর্থমন্ত্রী ও ভাষা সৈনিক আবুল মাল আবদুল মুহিতের মৃত্যুতে দুইদিনের শোক কর্মসূচি ঘোষণা করেছে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ। আজ শনিবার ও রোববার ২ দিনব্যাপী শোক কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে কালোব্যাজ ধারণ, সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন, সিলেটের সকল উপজেলায় ও সিলেট মহানগরের সকল ওয়ার্ডের বিভিন্ন মসজিদ ও মন্দিরে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় বিশেষ দোয়া ও প্রার্থনার আয়োজন। পবিত্র ঈদুল ফিতরের পরের দিন বাদ জোহর হযরত শাহজালাল (রহ:) মাজার মসজিদে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

খ্যাতনামা অর্থনীতিবিদ, রাজনীতিবিদ, ভাষাসৈনিক, সাবেক অর্থমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল মাল আবদুল মুহিত শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ৫৬ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

তার বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর। বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় সাবেক অর্থমন্ত্রী বেশ কিছুদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। মাঝে তাকে কয়েক দফায় হাসপাতালে ভর্তিও করা হয়। তিনি ২০০৯ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ সরকারের অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। অর্থমন্ত্রী হিসেবে আবুল মাল আবদুল মুহিত ১২টি বাজেট উপস্থাপন করেছেন।

আবুল মাল আবদুল মুহিত ১৯৩৪ সালের ২৫ জানুয়ারি সিলেটে জন্মগ্রহণ করেন। তৎকালীন সিলেট জেলা মুসলিম লীগের প্রতিষ্ঠাতা আবু আহমদ আবদুল হাফিজ ও সৈয়দা শাহার বানু চৌধুরীর ১৪ সন্তানের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয় সন্তান। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন তার ছোট ভাই। স্ত্রী সৈয়দা সাবিয়া মুহিত একজন ডিজাইনার। তিন সন্তানের মধ্যে কন্যা সামিনা মুহিত ব্যাংকার ও আর্থিক খাতের বিশেষজ্ঞ। বড় ছেলে সাহেদ মুহিত বাস্তুকলাবিদ এবং ছোট ছেলে সামির মুহিত একজন শিক্ষক।

আবুল মাল আবদুল মুহিতের মৃত্যুতে তার জন্মস্থান ও নির্বাচনী এলাকা সিলেটে দলমত নির্বিশেষে সকলের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।

সূত্র : বাসস