Search
Sunday 22 May 2022
  • :
  • :

আপনার রসবোধে পরিবর্তন স্মৃতিভ্রমের ইঙ্গিত

আপনার রসবোধে পরিবর্তন স্মৃতিভ্রমের ইঙ্গিত

স্বাস্থ্য ডেস্ক: প্রত্যেক মানুষের জীবনে রসবোধ এবং তার প্রয়োগ নানা ভাবে তার মানসিকতার পরিচয় তুলে ধরে। রসবোধ দিয়ে একজন মানুষ  অতি সহজেই দুরের কাউকে কাছে টেনে নিতে পারেন, আপন করে নিতে পারেন। রসবোধ এমনই এক মোক্ষম অস্ত্র, এমন অস্ত্র আর দ্বিতীয়টি নেই। একজন রসবোধ সম্পন্ন মানুষ অনেক প্রতিকূলতাকে অতি সহজে অনুকূলে আনতে পারেন।আবার বয়সের সাথে সাথে মানুষ তার এই অবস্থান হারাতে পারে। বিজ্ঞান এবং স্বাস্থ্য কথায় যার প্রমাণ মেলে। রসবোধ হারিয়ে ফেলা কোন রোগ কিনা এনিয়ে চিকিৎসকদের ভিতরে মতপ্রার্থক্য থাকলেও চিকিৎসা বিজ্ঞান একে একধরনের মানসিক অবসাদ বলেই স্বীকৃতি দিয়েছে। কোনো মানুষের রসবোধ বা রসিকতাকরার ধরনের যদি ক্রমাগত পরিবর্তন ঘটতে থাকে, তাহলে সেটা তার স্মৃতিভ্রম ঘটার আগাম ইঙ্গিত হতে পারে, বলছেন বিজ্ঞানীরা।যুক্তরাজ্যে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা গেছে, কারো স্মৃতিভ্রম হয়েছে সেটা ধরা পড়ার আগেই এই পরিবর্তন চোখে পড়েছে।

প্রায় ৫০ জন রোগীর পরিবারের সদস্য ও বন্ধু বান্ধবদের ওপর সমীক্ষা চালিয়ে এই উপসংহারে পৌঁছেছেন ইউনিভার্সিটি কলেজলন্ডনের গবেষকরা। তারা বলেছেন, স্মৃতিভ্রম ধরা পড়ার আগেই রোগীর রসবোধের ওই পরিবর্তন তাদের চোখে ধরা পড়েছে।অনেকে বলেছেন, এরকম কাউকে কাউকে মর্মান্তিক কোনো ঘটনার সময়েও হাসতে দেখা গেছে।

তবে রোগ ধরা পড়ার ঠিক কতো সময় আগে রসবোধের ক্ষেত্রে এই পরিবর্তন ঘটে বিজ্ঞানীরা সেটা ধরতে পারেন নি। তারা বলছেন,এজন্যে আরো গবেষণার প্রয়োজন।

কেউ যখন স্মৃতিভ্রষ্ট রোগে আক্রান্ত হন তখন তার মস্তিষ্কের যে অংশটি তার আচরণ ও ব্যক্তিত্বকে নির্ধারণ করে সেই অংশটি আক্রান্তহয়ে থাকে। এর ফলে ওই ব্যক্তি খুব সহজেই আবেগ-তাড়িত হয়ে পড়েন, কাজে কর্মে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন এবং

সামাজিক কোন পরিস্থিতিতে কি ধরনের আচরণ করতে হবে সেটা বুঝে উঠতে পারেন না। এই গবেষণা চালাতে গিয়ে রোগীর আত্মীয়স্বজন ও বন্ধু বান্ধবদের কাছে একটি প্রশ্নপত্র সরবরাহ করা হয়েছিলো। সেখানে জানতে চাওয়া হয়েছিলো তাদের প্রিয়জন কি ধরনেরকমেডি দেখতে পছন্দ করতেন। বিজ্ঞানীরা বলছেন, মিস্টার বিন, ইয়েস মিনিস্টার, মন্টি পাইথন – একেক ধরনের কমেডি থেকে ওইব্যক্তি সম্পর্কে একেক ধরনের ধারণা পাওয়া যায়। প্রায় সব উত্তরদাতাই বলেছেন, রোগটি ধরা পড়ার প্রায় ন’বছর আগে তারা ওইব্যক্তির রসবোধের ক্ষেত্রে পরিবর্তন লক্ষ্য করেছেন।

কোনো মানুষের রসবোধ বা রসিকতা করার ধরনের যদি ক্রমাগত পরিবর্তন ঘটতে থাকে, তাহলে সেটা তার স্মৃতিভ্রম ঘটার আগামইঙ্গিত হতে পারে, বলছেন বিজ্ঞানীরা। যুক্তরাজ্যে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা গেছে, কারো স্মৃতিভ্রম হয়েছে সেটা ধরাপড়ার আগেই এই পরিবর্তন চোখে পড়েছে। প্রায় ৫০ জন রোগীর পরিবারের সদস্য ও বন্ধু বান্ধবদের ওপর সমীক্ষা চালিয়ে এইউপসংহারে পৌঁছেছেন ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের গবেষকরা।

তারা বলেছেন, স্মৃতিভ্রম ধরা পড়ার আগেই রোগীর রসবোধের ওই পরিবর্তন তাদের চোখে ধরা পড়েছে।

অনেকে বলেছেন, এরকম কাউকে কাউকে মর্মান্তিক কোনো ঘটনার সময়েও হাসতে দেখা গেছে।তবে রোগ ধরা পড়ার ঠিক কতোসময় আগে রসবোধের ক্ষেত্রে এই পরিবর্তন ঘটে বিজ্ঞানীরা সেটা ধরতে পারেন নি। তারা বলছেন, এজন্যে আরো গবেষণারপ্রয়োজন। কেউ যখন স্মৃতিভ্রষ্ট রোগে আক্রান্ত হন তখন তার মস্তিষ্কের যে অংশটি তার আচরণ ও ব্যক্তিত্বকে নির্ধারণ করে সেইঅংশটি আক্রান্ত হয়ে থাকে। এর ফলে ওই ব্যক্তি খুব সহজেই আবেগ-তাড়িত হয়ে পড়েন, কাজে কর্মে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন এবংসামাজিক কোন পরিস্থিতিতে কি ধরনের আচরণ করতে হবে সেটা বুঝে উঠতে পারেন না।

এই গবেষণা চালাতে গিয়ে রোগীর আত্মীয় স্বজন ও বন্ধু বান্ধবদের কাছে একটি প্রশ্নপত্র সরবরাহ করা হয়েছিলো। সেখানে জানতেচাওয়া হয়েছিলো তাদের প্রিয়জন কি ধরনের কমেডি দেখতে পছন্দ করতেন। বিজ্ঞানীরা বলছেন, মিস্টার বিন, ইয়েস মিনিস্টার,মন্টি পাইথন – একেক ধরনের কমেডি থেকে ওই ব্যক্তি সম্পর্কে একেক ধরনের ধারণা পাওয়া যায়।প্রায় সব উত্তরদাতাই বলেছেন,রোগটি ধরা পড়ার প্রায় ন বছর আগে তারা ওই ব্যক্তির রসবোধের ক্ষেত্রে পরিবর্তন লক্ষ্য করেছেন।

সূত্র: বিবিসি




Leave a Reply

Your email address will not be published.