ঢাকা, ১১ সেপ্টেম্বর : আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের প্রধান মো. আবুল বাশারসহ তিনজনকে ব্লগার অভিজিৎ রায় হত্যা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছে আদালত।

ঢাকার মহানগর হাকিম শাহরিয়ার মাহমুদ আদনান শুক্রবার রিমান্ড আবেদনের শুনানি করে এই আদেশ দেন। বাকি দুই আসামি হলেন- আনসারুল্লাহর গণমাধ্যম শাখার সদস্য জুলহাস বিশ্বাস ও জাফরান আল হাসান।

এর আগে বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার দিকে রাজধানীর ফকিরাপুল থেকে ওই তিনজনকে গ্রেপ্তার করার পর র‌্যাবের পক্ষ থেকে বলা হয়, তিনজনের মধ্যে বাশার আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের প্রধান জসিম উদ্দিন রাহমানীর ভাই। রাহমানী কারাগারে থাকায় বাশারই দলের নেতৃত্ব দিয়ে আসছিলেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক ফজলুর রহমান তিন আসামিকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি চেয়েছিলেন।

আসামিদের মধ্যে জাফরানের পক্ষে জামিনের আবেদন করা হলে বিচারক তা নাকচ করে দেন বলে আদালত পুলিশের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা উপপরিদর্শক মাহামুদুর রহমান জানান।

র‌্যাবের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ব্লগার হত্যা ও আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের কার্যক্রম পরিচালিত হতো মূলত জসিম উদ্দিন রাহমানীর নির্দেশে। ওই নির্দেশ আসত তার ছোট ভাই বাশারের মাধ্যমে। আনসারুল্লাহ বাংলা টিম কোনো হত্যাকাণ্ড ঘটালে জুলহাস ও জাফরানের কাজ ছিল বিভিন্ন নামে হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করা।

র‌্যাবের দাবি, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় একুশে বই মেলায় ব্লগার অভিজিৎ রায়ের হত্যাকাণ্ডে মোট পাঁচ জনের একটি দল অংশ নিয়েছিল এবং আড়াই মাস পর ১২ মে তারাই সিলেটে ব্লগার অনন্ত বিজয় দাশকে হত্যা করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *