ঢাকা : দুর্নীতির দুই মামলায় ঢাকার জজ আদালতে হাজির হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বকশীবাজারে কারা অধিদপ্তরের মাঠে তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিশেষ এজলাসে খালেদার বিরুদ্ধে জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট ও জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার এই শুনানি চলছে।

খালেদার প্রেস সচিব মারুফ কামাল খান জানান, বিএনপি নেত্রী বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা ৫০ এ গুলশানের বাসা থেকে আদালতের উদ্দেশ্যে রওনা হন। তার গাড়ি আদালত প্রাঙ্গণে পৌঁছায় বেলা ১১টার দিকে।
সর্বশেষ গত ৩ সেপ্টেম্বর এ দুই মামলার শুনানি হলেও সেদিন আদালতে যাননি খালেদা। ওইদিন তার পক্ষে আইনজীবীরা হাজিরা দেন।

ওইদিন দাতব্য ট্রাস্টের মামলায় জব্দ তালিকার দুই সাক্ষী সোনালী ব্যাংকের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ইনসান উদ্দিন আহমেদ ও ক্যাশ কর্মকর্তা শাহজাহান খানের জেরা শেষ করেন আসামিপক্ষের আইনজীবীরা।

পরে জব্দ তালিকার অন্য তিন সাক্ষী পূবালী ব্যাংকের জ্যেষ্ঠ প্রধান কর্মকর্তা এস এম ইসমাইল এবং জনতা ব্যাংকের সাত মসজিদ শাখার মহাব্যবস্থাপক শেখ মকবুল ও ফাহমিদা রহমানের সাক্ষ্য নেওয়া হয়।

এর আগে মামলার বাদী দুদকের উপ-পরিচালক হারুন অর রশিদ এবং এজহার গ্রহণকারী পুলিশ কর্মকর্তা মাহফুজুল হক ভূঁইয়া এ মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছেন।

জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় এ পর্যন্ত সাক্ষ্য দিয়েছেন মামলার বাদী দুদকের উপ-পরিচালক হারুন অর রশিদ, তবে তার জেরা বাকি রয়েছে।

এতিমদের সহায়তার জন্য একটি বিদেশি ব্যাংক থেকে আসা ২ কোটির বেশি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় দুদক জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলাটি করে।

জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট মামলাটি হয় ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায়। ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগ এনে এ মামলা করা হয়।

গত বছরের ১৯ মার্চ এ দুই দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন হয়। এরপর ৭ মে এই দুটি মামলার বিচারের জন্য বকশীবাজারের বিশেষ এজলাসে পাঠানো হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *