Search
Saturday 19 October 2019
  • :
  • :

আজ থেকে হজফ্লাইট শুরু

আজ থেকে হজফ্লাইট শুরু

ঢাকা, ৪ জুলাই : চলতি বছরের হজ ফ্লাইট বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে। সকাল সোয়া ৭ টায় ৪১৯ জন হজযাত্রী নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রথম হজ ফ্লাইট (বিজি-৩০০১) ঢাকা ত্যাগের মধ্য দিয়ে চলতি বছরের হজযাত্রা শুরু হবে। ধর্মপ্রতিমন্ত্রী আলহাজ শেখ আব্দুল্লাহ এবং বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী প্রথম হজ ফাইট উদ্বোধন করবেন। বৃহস্পতিবার প্রথমদিন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও সৌদি এরাবিয়ান এয়ারলাইন্সের মোট ৮টি ফ্লাইট ঢাকা ছেড়ে যাওয়ার শিডিউল রয়েছে।

প্রথম দিন থেকেই হজযাত্রীদের সৌদি আরবের ইমিগ্রেশন(প্রি-এরাভাইল ইমিগ্রেশন) ঢাকায় বিমানবন্দরের ১১ নং গেইটে স্থাপিত বিশেষ কেন্দ্র থেকে সম্পন্ন করার কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। বাংলাদেশ বিমানের ৪টি হজ ডেডিকেটেড ফ্লাইটের এই ইমিগ্রেশন সম্পন্ন হবে। বাংলাদেশে এই প্রথমবারের মতো এই ধরনের প্রি-এরাইভাল ইমিগ্রেশন চালু হচ্ছে। মোট ১৪৯ ফ্লাইটের হজযাত্রীরা এই সুবিধা পাবেন মর্মে ধর্ম মন্ত্রণলায় ইতোমধ্যেই ফ্লাইটগুলোর তালিকা প্রকাশ করেছে। এর মধ্যে বাংলাদেশ বিমানের ১২১ টি ও সৌদি এয়ারের ২৮টি ফ্লাইট রয়েছে।

বৃহস্পতিবার যে ফ্লাইটগুলো ঢাকা ছেড়ে যাওয়ার কথা রয়েছে সেগুলো হলো-সকাল ৭.১৫ টায় বিজি-৩০০১, সকাল ১১.১৫ টায় বিজি-৩১০১, ৩.১৫ টায় বিজি ৩২০১, সন্ধ্যা ৭.১৫ টায় বিজি-৩৩০১ ও রাত ৮.১৫ টায় বিজি-০০৩৫। এছাড়া সৌদি এয়ারের তিনটি ফ্লাইটেও হজযাত্রী যাওয়ার কথা রয়েছে। সেগুলো হলো- ভোর ৩.০৭টায় এসভি-৮০৩, বেলা ১২.০৭ টায় এসভি-৩৮০৫ ও ২.০৭ টায় এসভি-৮০৯।

আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্ত হজফ্লাইট চলবে। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১০ আগস্ট পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে। এবছর বাংলাদেশী হজযাত্রী ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮জন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনার ৭ হাজার ১৯৮ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনার ১ লাখ ২০ হাজার জন (গাইডসহ)। হজ শেষে ফিরতি ফ্লাইট ১৭ আগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে।

এর মধ্যে অর্ধেক হজযাত্রী বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্স পরিবহন করবে এবং বাকী অর্ধেক এয়ারলাইন্স করবে। বাংলাদেশ বিমান এ বছর ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন হজযাত্রী পরিবহন করবে বলে জানিয়েছে।বিমান দুই মাসব্যাপী হজফ্লাইট পরিচালনায় শিডিউল ফ্লাইটসহ মোট ৩৬৫ টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে, যার মধ্যে ৩০৪ ‘ডেডিকেটেড’ এবং ৬১টি শিডিউল ফ্লাইট। প্রি-হজ মোট ১৮৯ টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে (ডেডিকেটেড-১৫৭ এবং শিডিউল ৩২)। পোস্ট-হজে ১৪৭ টি ফ্লাইট (ডেডিকেটেড-১৪৭ এবং শিডিউল ২৯) এর মধ্যে বাংলাশে থেকে মদিনা ১৮টি ও মদিনা থেকে বাংলাদেশে ১৫ টি সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। হজফ্লাইট পরিচালনার জন্য বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ঢাকা-জেদ্দা এবং ঢাকা-মদিনা উভয় স্থানেই বিশেষ ব্যবস্থার আয়োজন করেছে। চট্টগ্রাম এবং সিলেট থেকেও এ বছর যথাক্রমে ১৯ টি ও তিনটি হজ-ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান।

হজযাত্রীদের জেদ্দা বিমান বন্দরে ইমিগ্রেশনের সময় ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষার বিড়ম্বনা লাঘবে বাংলাদেশের অনুরোধের প্রেক্ষিতে এই বছর থেকে সৌদি আরবের ইমিগ্রেশন ঢাকায় আজ থেকেই শুরু হচ্ছে। এ লক্ষে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ১১ নং গেইটে সৌদি কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণানাধীন বিশেষ ইমিগ্রেশন জোন স্থাপন করা হয়েছে। ওই ইমিগ্রেশন কার্যক্রম দ্রুত সম্পন্ন করার জন্য হজযাত্রীদের হাতের আঙ্গুলের ছাপ নেয়া, ছবি ওঠানোসহ অনলাইন প্রোফাইল তৈরীর জন্য আশকোনা হজক্যাম্পে বিশেষ বুথ স্থাপন করা হয়েছে। ইতোমধ্যেই শুক্রবারের হজযাত্রীদের প্রি-এরাইভাইল ইমিগ্রেশনের হজযাত্রীদের অনলাইন প্রোফাইল তৈরী হয়েছে বলে জানা গেছে। এই প্রোফাইল সম্পন্ন হওয়ার কারণে বিমানবন্দরে মাত্র তিন মিনিটের মধ্যেই হজযাত্রীদের প্রি-এরাইভাল ইমিগ্রেশন করা সম্ভব হবে বলে সৌদি আরব থেকে আগত কারিগরি দলের সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

বুধবার সরেজমিন দেখা গেছে, সৌদি আরব থেকে আগত দায়িত্বপ্রাপ্ত কোম্পানীর কর্মকর্তা কর্মচারিরা ২০টি বুথে হজক্যাম্পে তথ্য প্রোফাইল তৈরীর কাজ করছিলেন। প্রি-এরাইভাল সুবিধাপ্রাপ্ত ফ্লাইটগুলোর হজযাত্রীদের ফ্লাইট ছাড়ার ৮ ঘন্টা আগে আশকোনা হজ অফিসে রিপোর্ট করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ বিমানের হজযাত্রীদের বাংলাদেশের ডিপার্টচার ইমিগ্রেশন ও লাগেজ চেক ও গ্রহণ সম্পন্ন করার পর হাজীদের প্রি-এরাইভাল ইমিগ্রেশনের প্রোফাইল তৈরীর কাজ করা হবে।

উল্লেখ্য, সৌদি এয়ারের যাত্রীদের ডিপার্টচার ইমিগ্রেশন যথানিয়েমেই বিমানবন্দরে অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে এবার আশকোনা হজক্যাম্পে হজযাত্রী এবং হজের কাজের সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ছাড়া দর্শনার্থীদের ভেতরে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। হজযাত্রীরা ফ্লাইটের শিডিউল অনুযায়ী ক্যাম্পের ডরমেটরিতে অবস্থান নিচ্ছেন।