Search
Sunday 19 May 2019
  • :
  • :

আইপিডিসির পর্ষদ সভা ৩১ জুলাই

আইপিডিসির পর্ষদ সভা ৩১ জুলাই

ডেইলি রিপোর্ট ডেস্ক : অর্ধ বার্ষিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনার জন্য পরিচালনা পর্ষদের সভা আহ্বান করেছে আইপিডিসি ফিন্যান্স লিমিটেড। আগামী ৩১ জুলাই সভাটি অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সর্বশেষ রেটিং অনুযায়ী কোম্পানিটির ঋণমান দীর্ঘমেয়াদে ‘ডাবল এ ওয়ান’ ও স্বল্প মেয়াদে ‘এসটি- ওয়ান’। ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত ২০১৭ হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন ও হালনাগাদ অন্যান্য তথ্যের ভিত্তিতে এ মূল্যায়ন করেছে ক্রেডিট রেটিং এজেন্সি অব বাংলাদেশ (সিআরএবি)।

২০১৭ হিসাব বছরের জন্য ২০ শতাংশ স্টক ল্যভ্যাংশ দিয়েছে আইপিডিসি। গেল বছর ব্যাংক-বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৮৫ পয়সা, আগের বছর যা ছিল ১ টাকা ৬৭ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর কোম্পানির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়ায় ১৭ টাকা ১১ পয়সায়।

এছাড়া ১৩ টাকা দরে বিদ্যমান দুটি শেয়ারের বিপরীতে একটি করে রাইট শেয়ার ইস্যুরও ঘোষণা দিয়েছে কোম্পানি, বিশেষ সাধারণ সভায় (ইজিএম) যার পরিকল্পনা অনুমোদন করেছেন শেয়ারহোল্ডাররা। এর আগে ২০১৫ ও ২০১৬ সালের জন্য ২০ শতাংশ হারে বোনাস শেয়ার পেয়েছিলেন আইপিডিসি শেয়ারহোল্ডাররা।

সর্বশেষ অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) ৩৩ পয়সা ইপিএস দেখিয়েছে কোম্পানিটি, যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ২৯ পয়সা।

১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত দেশের প্রথম ব্যাংক-বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানটি ২০০৬ সালে ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্রমোশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি (আইপিডিসি) অব বাংলাদেশ লিমিটেড নামে শেয়ারবাজারে আসে। মালিকানা কাঠামোয় গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন আসার পর ২০১৬ সালে কোম্পানির নাম পরিবর্তন হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির পরিশোধিত মূলধন ২১৮ কোটি ১৬ লাখ ১০ হাজার টাকা ও রিজার্ভ ৭৬ কোটি ১৯ লাখ টাকা। উদ্যোক্তা-পরিচালকদের কাছে কোম্পানির ৫১ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ শেয়ার, বাংলাদেশ সরকারের হাতে ২১ দশমিক ৮৮ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ১৪ দশমিক ৬৪, বিদেশী দশমিক শূণ্য দশমিক ১৮ ও বাকি ১২ দশমিক ২৪ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীর হাতে। সূত্র: বণিক বার্তা।